নীড় পাতা » বান্দরবান (পাতা 20)

বান্দরবান

বান্দরবানে সচল হলো সড়ক যোগাযোগ 

টানা আটদিন পর বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ চালু হয়েছে। তবে পাহাড় ধসের কারণে রুমা উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। প্লাবিত সড়ক থেকে বন্যার পানি নেমে যাওয়ায় বুধবার সকাল থেকে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। শহরের বাসস্ট্যান্ড ছেড়ে গেছে চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ দূর পাল্লার যাত্রীবাহি পরিবহনগুলো। এদিকে পাহাড় ধসে সড়ক বিধ্বস্ত হওয়ায় রুমা-উপজেলার সঙ্গে জেলা সদর অভ্যন্তরীণ সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে ৩ …

বিস্তারিত পড়ুন

লামায় ত্রাণের চাল পেল ক্ষতিগ্রস্ত ১৭০০ পরিবার

গত কয়েকদিনের প্রবল বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যা ও পাহাড়ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ করেছে লামা পৌরসভা। প্রতি পরিবারের মাঝে ১৫ কেজি হারে মোট ১ হাজার ৭০০ পরিবারের মাঝে এ চাল বিতরণ করা হয়। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ চাল বিতরণ উদ্বোধন করেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল। এ সময় নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, …

বিস্তারিত পড়ুন

ভোগান্তিতে যাত্রীরা, বেড়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম

আটদিনেও চালু হয়নি বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। এক সপ্তাহ ধরে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় বান্দরবানে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের সংকট দেখা দিয়েছে। সংকটের কারণে জিনিসপত্রের দামও বেড়ে গেছে কয়েকগুন। সাধারণ মানুষের ভোগান্তির যেনো শেষ নেই। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৩২০ টাকায়। পঞ্চাশ-ষাট টাকার কমদামে কোনো ধরণের সবজি নেই। পেয়াজ, মোমবাতি, রসুন, বৈজ্যতেল, জ্বালানী তৈল অকটেন’সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন ধরণের …

বিস্তারিত পড়ুন

পাহাড় ধসে বিধ্বস্ত রুমা-থানচি সড়ক

বান্দরবানে পাহাড় ধসে রুমা-থানচি উপজেলাসহ অভ্যন্তরীণ সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অবিরাম ভারী বর্ষণে অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোর কোথাও কোথাও সড়কের চিহ্নও খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। সম্পূর্ন ধসে পড়েছে পাহাড়ি ঢলে। অনেক স্থানে পাহাড় ধসে সড়কের মধ্যখানে তৈরি হয়েছে মাটির বিশাল স্তুপ। সোমবার অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সড়কগুলো ঘুরে ভয়াবহ এ চিত্র দেখা গেছে। জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয়রা জানায়, কয়েকদিনের অবিরাম ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি …

বিস্তারিত পড়ুন

ঘরে ফিরছে বন্যার্তরা, বিশুদ্ধ পানির তীব্র সংকট

বান্দরবানে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। তবে প্রধান সড়ক বন্যার পানিতে প্লাবিত থাকায় বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ চালু হয়নি ৭দিন পরও। বৃষ্টি বন্ধ হলেও সাঙ্গু নদীর পানি এখনো বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সোমবার প্লাবিত এলাকাগুলো থেকে বন্যার পানি নেমে যাওয়ায় আশ্রয় কেন্দ্রগুলো ছেড়ে ঘরে ফিরছে দুর্গতরা। এদিকে বন্যার পানি নেমে গেলেও দুর্গতাঞ্চলের মানুষের দুর্ভোগ কমেনি মোটেও। বন্যায় ঘরবাড়ি এবং …

বিস্তারিত পড়ুন

লামায় ফের পাহাড়ি ঢলে নিচু এলাকা প্লাবিত

ফের ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে বান্দরবানের লামা পৌর এলাকাসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নিচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। শুক্রবার দিবাগত রাত থেকে একটানা রবিবার সকাল পর্যন্ত টানা বর্ষণের ফলে মাতামুহুরী নদী, ঝিরি ও খালগুলোতে অস্বাভাবিকভাবে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় পৌর এলাকার ৫’শতাধিক বাড়িঘরসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নিচু এলাকাগুলো প্লাবিত হয়। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়ে পাহাড়ি এলাকার প্রায় …

বিস্তারিত পড়ুন

৬ দিনেও চালু হয়নি সড়ক যোগাযোগ, জনদুর্ভোগ

অবিরাম বর্ষণে বান্দরবানে বসতবাড়িতে পাহাড় ধসে একজন নারীর মৃত্যু হয়েছে। ছয়দিন ধরে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে বান্দরবান। বন্যায় বান্দরবান-কেরানীহাট প্রধান সড়ক প্লাবিত হওয়ায় রোববার ষষ্ঠদিনের মত সারাদেশের সঙ্গে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জেলা বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। তবে বৃষ্টিপাত কমে যাওয়ায় রোববার দুপুরের পর বন্যায় প্লাবিত অভ্যন্তরিণ সড়কগুলো থেকে পানি নেমে যায়। কিন্তু প্লাবিত এলাকাগুলোর অধিকাংশ বসতবাড়ি এখনো বন্যার পানিতে …

বিস্তারিত পড়ুন

পানিতে ভাসছে বান্দরবান, ৫ দিনেও চালু হয়নি সড়ক যোগাযোগ

বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ নিয়েছে বান্দরবানে। ১৯৯৭ সালের পর বিগত ২২ বছরেও বন্যার পানি এতটা উঠেনি দাবি ভুক্তভোগীদের। অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ চালু হয়নি ৫দিনেও। এরই মধ্যে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি, বান্দরবান-রাঙামাটিসহ অভ্যন্তরীণ সবগুলো রুটের সড়ক যোগাযোগও। বন্যায় পানিতে প্লাবিত হয়েছে পর্যটনের শহর বান্দরবান পৌরসভার চারপাশ। জানা গেছে, চলতি …

বিস্তারিত পড়ুন

লামায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

বান্দরবানের লামা উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির সামগ্রিক উন্নতি হয়েছে। উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে চলা মাতামুহুরী নদীর পানি নেমে যাওয়ায় শুক্রবার ভোর রাতে প্লাবিত এলাকা থেকে দ্রুত গতিতে পানি কমে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়। এতে সকাল থেকে বাড়িঘরে ফিরতে শুরু করেছেন নিরাপদ আশ্রয়ে থাকা মানুষগুলো। তবে পানি কমার পর রাস্তাঘাট ও ঘরবাড়িগুলোতে জলকাদায় ভরে থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন বাসিন্দারা। এদিকে এক দিন বন্ধ …

বিস্তারিত পড়ুন

বন্যায় বান্দরবানে ত্রিশ হাজার মানুষ পানিবন্দি

অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানে সাতটি উপজেলায় প্রায় ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যার পানিতে প্রধান সড়কসহ অভ্যন্তরিণ বেশিরভাগ সড়ক প্লাবিত হওয়ায় চতুর্থ দিনেও চালু হয়নি সারাদেশের সঙ্গে পর্যটনের শহর বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ। এছাড়াও পাহাড় ধস এবং সড়কে পানি উঠায় জেলার রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার অভ্যন্তরিন সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থাও বন্ধ রয়েছে। সাঙ্গু এবং …

বিস্তারিত পড়ুন