নীড় পাতা » ব্রেকিং » ‘জঙ্গি সংগঠনগুলো দেশে গুপ্তহত্যায় জড়িত’

‘জঙ্গি সংগঠনগুলো দেশে গুপ্তহত্যায় জড়িত’

sena‘দেশে বর্তমানে গুপ্তহত্যা চলছে। জঙ্গি সংগঠনগুলোই দেশে এই হত্যার সাথে জড়িত। তারা এই স্বাধীন দেশে হত্যাকান্ড করে দেশে বিশৃঙ্খলা করতে চায়। তাদের এই গুপ্তহত্যার কাছে সুন্নীরা মাথানত করবে না। এর দাঁতভাঙ্গা জবাব সুন্নীরা দিতে জানে।’

রাঙামাটি জেলা ছাত্রসেনার প্রতিনিধি সম্মেলন ও কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব স.উ.ম আব্দুল সামাদ এসব কথা বলেন।

জেলা ছাত্রসেনার বিদায়ী সভাপতি এম মনছুর আলীর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ইসলামী ফ্রন্ট সহ-সভাপতি মাওলানা শফিউল আলম আল কাদেরী, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সাবিবর আহম্মেদ ওসমানী, জেলা ছাত্রসেনার সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় ইসলামী ফ্রন্ট সদস্য এম.এ মুস্তফা হেজাজী, জেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আখতার হোসেন চৌধুরী, সাবেক জেলা ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক এম.এ হাকিম, জেলা গাউছিয়া কমিটির অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, জেলা যুবসেনার আহবায়ক মোহাম্মদ আলমগীর ও জেলা ছাত্রসেনার সাবেক সভাপতি ইয়াছিন রানা সোহেল। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রসেনার সহ-সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, বিশেষ বক্তা ছিলেন সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.এম শহীদ উল্লাহ্।

সম্মেলনে কর্মী সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন উপলক্ষে ‘পার্বত্য সেনানী’ নামক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুগ্ম মহাসচিব আরো বলেন, শান্তিবাহিনী যেমন শান্তির পক্ষে কাজ করেনা। প্রতিনিয়ত পাহাড়ে তারা অস্ত্রবাজি করের অশান্তিই সৃষ্টি করে চলেছে। তেমনি আহম্মদ শফি অর্থ শাফায়াত স্বীকারকারী। কিন্তু সে রাসুল (দঃ) যে শাফায়াত করবে তা অস্বীকার করে। তার পরিচালনাধীন সারা দেশে বিভিন্ন কওমী মাদ্রাসায় অনেক রকমের অপকর্ম ঘটে চলেছে। তাছাড়া তারা শিক্ষার্থীদেরকে শিক্ষার নামে জঙ্গি প্রশিক্ষন করাচ্ছে। সরকারকে এসব মাদ্রাসার ব্যাপারে সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, এই মাস ভাষা শহীদের মাস, কিন্তু দেখা যায় কওমী মাদ্রাসাগুলো শহীদ দিবস পালন করেনা। বরঞ্চ তারা বিরূপ আচরণ করে। এতে করে কি বলা যায় তারা এই দেশের নাগরিক? এমন সংগঠন এবং মাদ্রাসাগুলোকে সরকারের তদারকি করা প্রয়োজন।

পরে মুহাম্মদ জাকির হোসেনকে সভাপতি এবং মুহাম্মদ তারেক আজিজকে সাধারণ সম্পাদক এবং শাহজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ আবদুল বারীকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩৫ সদস্য বিশিষ্ট জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জুরাছড়িতে গুলিতে নিহত কার্বারির ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় স্থানীয় এক কার্বারিকে (গ্রামপ্রধান) গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী সন্ত্রাসীরা। রোববার …

Leave a Reply