নীড় পাতা » ব্রেকিং » ৫ বছরে ২৫৪ বার আগুন

৫ বছরে ২৫৪ বার আগুন

fire-serviceপার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে গত পাঁচ বছরে আগুন লেগেছে ২৫৪ বার। এতে ক্ষতি হয়েছে অন্তত: ৩ কোটি ৭৯ লক্ষ ৯০ হাজার ১০০ টাকা। এই সময় ফায়ারসার্ভিস কর্মীদের তৎপরতায় উদ্ধার করা হয়েছে ১১ কোটি ২৬ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা। এই সময় সড়ক দূর্ঘটনায় ৭০ জন আহত এবং ৮ জন নিহত হয়। একই সময় ৭টি নৌ-দূর্ঘটনায় ৬ জন নিহত এবং ২ টি পাহাড় ধসের ঘটনায় ২ জন নিহত হয়।

আর দেশের সবচে বড় এই জেলায় অবস্থিত দেশের আয়তনে সবচে বড় উপজেলাটিও,যার নাম বাঘাইছড়ি। আবার জেলার দশ উপজেলার ছয়টিতেই যোগাযোগের প্রধানতম মাধ্যম নৌপথ। ফলে জেলাজুড়ে যে বিস্তৃত সীমানা তাতে আগুন নেভানোর জন্য যে প্রয়োজনীয় সামর্থ্য থাকার কথা ফায়ার বিগ্রেডের,তা নেই। খোদ ফায়ার সার্ভিসের ফিসারি ঘাটের পাশে রয়েছে রাঙামাটি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, যারা জেলা শহরের বিভিন্ন জায়গায় কোন দূর্ঘটনা হলেই এগিয়ে আছে। কিন্তু তাদের যে ভবনটি আছে, তা অনেক পুরানো। ফলে কিছুদিন আগেও এটি ছিলো ঝুকিপূণ,এনিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে অনেক সংবাদ প্রচার করেছে, পরবর্তীতে সে ভবনটি মেরামত করে দিয়েছে রাঙামাটি গণর্পূত বিভাগ।

রাঙামাটিতে নানান দূর্ঘটনা মধ্যে সবচে বেশি হয় আগুন লাগা। নৌ-স্টেশন হলে রাঙামাটির পানি পথে যে এলাকা গুলো রয়েছে সেখানে যদি কোন দূর্ঘটনা হয় তবে সে দূর্ঘটনা থেকে অনেক ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কমাতে পারবে বলে জানিয়েছে রাঙামাটি শহরের একাধিক সাধারণ জনগণ।

রাঙামাটি ফায়ার স্টেশনের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যমতে রাঙামাটি শহরে গত পাঁচ বছরে বেশি আগুন লেগেছে রির্জাভবাজার এলাকায়, আর আগুনের কারন হিসেবে দেখা যায় বৈদ্যুতিক শক সার্কিট।

রাঙামাটি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সহকারী পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফা বলেন, রাঙামাটির ফায়ার স্টেশনের বর্তমান অবস্থা অনেকটাই ভালো। এখন তেমন কোন সমস্যা নেই। এই স্টেশনে বর্তমানে দূর্ঘটনা রোধের সরঞ্জাম ও জনবল পর্যাপ্ত রয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি আরো জানান, এই স্টেশনে দূর্ঘটনা রোধের জন্য পানি বাহিগাড়ি আছে ১টি, টানা গাড়ি আছে ২টি, রেসকিউ গাড়ি আছে ১টি, এ্যাম্বুল্যান্স আছে ১টি, মোট গাড়ি রয়েছে ৫টি, আগুনের কাজে ব্যবহারকারি পাম্প আছে ৩টি।

সহকারী পরিচালক আরো বলেন, রাঙামাটি বেশির ভাগ জায়গায় যেতে হয় নৌ পথে, সেখানে দূর্ঘটনা হলে যেতে কিছুটা কষ্ট হয়। তাই এই নৌ-স্টেশন করা রাঙামাটিবাসীর অনেক দিনের দাবি। এবং এটা খুবই প্রয়োজন।

তিনি আরো বলেন, রাঙামাটিতে নৌ এবং ভূমিতে একই ভাবে সেবা দেওয়ার জন্য যে স্টেশন করা দরকার তার জন্য জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। অচিরেই এর কাজ শুরু হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply