নীড় পাতা » ব্রেকিং » ৫৬’র বিপরীতে ১৩, শিক্ষক সংকটের প্রভাব ফলাফলে

রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজ

৫৬’র বিপরীতে ১৩, শিক্ষক সংকটের প্রভাব ফলাফলে

তিন পার্বত্য জেলায় শুধুমাত্র মেয়েদের উচ্চ শিক্ষার জন্য ১৯৯৪ স্থাপিত করা হয় রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজ। শুরুতে কলেজে শুধুমাত্র উচ্চ মাধ্যমিক থাকলেও বর্তমানে কলেজটিতে স্নাতক শ্রেণিতেও পাঠদান চলছে। নারী শিক্ষার এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই আজও শিক্ষক সংকটে জর্জরিত।

কলেজ প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ৫৬ পদের বিপরীতে এই কলেজে বর্তমানে শিক্ষক রয়েছে মাত্র ১৩ জন। শিক্ষক সংকটের কারণে প্রতি বছর প্রভাব পড়ছে শিক্ষার্থীদের ফলাফলে। বর্তমানে প্রায় তিন হাজার ছাত্রী এই কলেজে পড়ালেখা করছে। নানান সময়ে মন্ত্রণালয়ে ধর্না দিয়েও আজও শিক্ষক সংকটের সমাধান পায়নি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কলেজের মানবিক শাখার স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আঁখি আক্তার বলেন, ৫৬টি পদের বিপরীতে কলেজে বর্তমানে শিক্ষক রয়েছে ১৩ জন। শিক্ষক সংকটের কারণে সবগুলো ক্লাস হচ্ছেনা। আবার কিছু কিছু বিষয়ে কোনো শিক্ষকও নেই। এতে প্রভাব পড়ছে ছাত্রীদের ফলাফলের ওপর। প্রতিবছর ফল খারাপ হচ্ছে।

ব্যবসায়ী শাখার দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী বর্ষা চাকমা বলেন, তথ্য প্রযুক্তি (আইসিটি) পরীক্ষায় অনেক ছাত্রী ফেল করেছে। তার প্রধান কারণ এই বিষয়ের আমাদের কোনো শিক্ষক নেই। তাহলে এভাবে চলতে থাকলে আমাদেরও একই অবস্থা হবে। তাই সরকারের কাছে আমাদের দাবি, নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে দ্রুত শিক্ষক নিয়োগ দেয়া।

এ প্রসঙ্গে নারী উন্নয়নকর্মী নুকু চাকমা বলেন, আমার মনে হয় মহিলাদের কলেজ বলে এভাবে কলেজটি অবহেলা করা হচ্ছে। পুরুষ শিক্ষিত হলেই সমাজ এগিয়ে যাবে না। সমাজকে এগিয়ে নিতে হলে অবশ্যই নারীদেরও শিক্ষিত করা জরুরী। তাই মহিলাদের কলেজটিকে এভাবে অবহেলায় ফেলে না রেখে, কিভাবে তাল মিলিয়ে এগিয়ে নেয়া যায় সেদিকে সকলের দৃষ্টি কামনা করছি।

শিক্ষাবিদ ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক সদস্য নিরূপা দেওয়ান বলেন, পাহাড়ে নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে আলাদা করে মহিলা কলেজ নির্মাণ করা হলেও দীর্ঘদিন শিক্ষক সংকটসহ নানান সমস্যায় যেভাবে এগিয়ে যাওয়ার কথা সেভাবে হাটছে না। এই কলেজের সাথে সংশ্লিষ্ট ও সরকারে কাছে অনুরোধ রাখব, শিক্ষক সংকটসহ সকল সমস্যা দূর করে নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।

শিক্ষক সংকটের কথা স্বীকার করে রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক খন্দকার বলেন, এই বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরেই মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগ করেও কোনো সমাধান পাচ্ছিনা। ৫৬ পদের বিপরীতে এই কলেজে বর্তমানে শিক্ষক রয়েছে মাত্র ১৩ জন। এই অল্প সংখ্যক শিক্ষক দিয়ে পাঠদান চালিয়ে যাওয়া খুব কঠিন। শিক্ষক সংকটের কারণেই প্রতি বছর প্রভাব পড়ছে শিক্ষার্থীদের ফলাফলেও।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বাঘাইছড়িতে এমএনলারমাপন্থী পিসিপি নেতা খুন

রাঙামাাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএনলারমা) সহযোগী ছাত্রসংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের …

Leave a Reply