নীড় পাতা » পার্বত্য উন্নয়ন » হাসপাতাল ১০০ শয্যার হলেও অবকাঠামো এখনো ৫০ শয্যারই !

হাসপাতাল ১০০ শয্যার হলেও অবকাঠামো এখনো ৫০ শয্যারই !

DSC02154রাঙামাটি সদর হাসপাতালের স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে সেবাগ্রহীতাদের মতবিতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সচেতন নাগরিক কমিটি(সনাক), রাঙামাটির’র উদ্যোগে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের সভা কক্ষে সভায় সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান। সভায় উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ নূয়েন খীসা, নার্স এবং সেবাগ্রহীতা সহ অন্যান্য ডাক্তারগণ। সনাক সভাপতি নিরূপা দেওয়ানের সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সনাক সদস্য অমলেন্দু হাওলাদার, স্বজন সদস্য ডাঃ রঞ্জিত নাথ, ইয়েস এবং ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যবৃন্দ।DSC02133
সনাক সভাপতি নিরূপা দেওয়ান হাসপাতাল এর সার্বিক পরিবর্তন এবং সেবার মান বিষয়ে ওর্য়াডে গিয়ে রোগী এবং তাদের আত্মীয় স্বজনদের সাথে কথা বলেন এবং খোঁজ খবর নেন।
আলোচনায় শূন্য পদে পদায়ন ও নিয়োগ দান এবং গত নিয়োগের সময় রাঙ্গামাটিতে কোন ডাক্তার যোগদান করতে না আসা বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় আলোচনা হয় ৫০ শয্যার হাসপাতাল ১০০ শয্যায় রূপান্তরিত করা হয়েছে কিন্তু সুযোগ সুবিধা এবং লোকবল সেই ৫০ শয্যার অনুপাতেই রয়ে গেছে। সমস্যাসমূহ চিহ্নিত করে মন্ত্রী পর্যায়ে আলোচনা না করে ডিডি অথবা ডিজি বরাবর এ্যাডভোকেসী করার জন্য সনাক এর পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়। ইয়েস সদস্যদের দিয়ে হাসপাতালের সেবা গ্রহীতাদের মধ্যে হাসপাতাল কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত মাতৃ দুগ্ধ কর্ণার বিষয়ে প্রচারণা এবং সচেতনতা সৃষ্টি করার জন্য বিভিন্ন কাজ করার জন্য সুপারিশ করেন সিভিল সার্জন। আলোচনায় জানানো হয় হাসপাতালের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বেশ ভালো এবং বর্তমানে হাসপাতালে কোন ঔষধ সংকট নেই। তবে বিতরণের কারণে শর্ট পড়তে পারে যার কারণে অনেক সময় গালমন্দ শুনতে হয়। সভায় উপস্থিত সকলে হাসপাতাল এর সমস্যা নিয়ে জেলা পরিষদের সাথে আলোচনা করার ব্যাপারে একমত পোষন করেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বান্দরবানে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

বান্দরবানের লামা উপজেলার রুপসীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাচিং প্রু মারমার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা …

Leave a Reply