নীড় পাতা » ব্রেকিং » স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তার পার্বত্য চট্টগ্রাম চাই : দীপংকর 

স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তার পার্বত্য চট্টগ্রাম চাই : দীপংকর 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য ও রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার বলেছেন, আমরা সন্ত্রাস মুক্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম চাই। যেখানে মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যু নিশ্চয়তা থাকবে। আমরা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কথা বলি, অস্ত্রের বিরুদ্ধে কথা বলি। আমরা চাই পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি ফিরে আসুক। আওয়ামীলীগ অসাপ্রদায়িক চিন্তা চেতনায় বিশ্বাসী। অবৈধ অস্ত্রের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলেন নাই আওয়ামীলীগ ছাড়া। অবৈধ অস্ত্রধারীরা চেয়েছিলো ১/২টা খুন করে পাহাড়কে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করে ফায়দা লুটবে। প্রশাসন তা হতে দেয়নি। কঠোর হস্তে তাদের ধমন করছে।

গত বৃহস্পতিবার রাঙামাটির কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

দীপংকর তালুকদার বলেন, সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ পাহাড়ে শান্তির জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। যার ফলে বর্তমানে চাঁদাবাজি কমেছে। অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি কমেছে। আমরা তাদের ধন্যবাদ জানাই। পাহাড়ে সন্ত্রাস মুক্ত, চাঁদাবাজ মুক্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, বিএনপি মনে করেছিলো, সন্ত্রাসীরা যাদের মারছে তারা আওয়ামীলীগের লোক আমাদের কী। ভালোই তো হচ্ছে। বিএনপির এমন ভালোলাগা ভেঙে দিয়েছে রাজস্থলী উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতিকে খুন করে। সন্ত্রাসীদের কাছে কোনো জাত ধর্ম নেই। তাই সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করেন।

বর্তমানে পার্বত্য চট্টগ্রামের ধমীয় উপসনালয়ে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ধর্মীয় গুরুদের জিম্মি করে অবস্থান করে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, এসব ধমীয় প্রতিষ্ঠানকে কোনো ক্রমেই সন্ত্রাসীদের আখড়ায় পরিণত করা যাবেনা। এজন্য সংশ্লিষ্ট ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক থাকতে হবে। তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করতে হবে প্রশাসনকে।

দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আগে দল করার জন্য লোক পাওয়া যেত না, এখন দলে লোকের অভাব হয়না এবং প্রতিযোগিতা বেড়ে গেছে। তিনি দলের মধ্যে কোনো প্রকার অনুপ্রবেশকারী ঢুকে দলকে যেন বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে না পারে সেদিকে সকলকে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়েছেন।

কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অংসুই প্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনষ্ঠিত সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন, রাঙামাটি জেলা আওয়ামলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, অংচা প্রু মারমা, মো. রুহুল আমিন, সাধারন সম্পদক মো. হাজী মুছা মাতব্বর, কাউখালী উপজেলা আওয়ামলীগের সহ-সভাপতি ক্যজাই মারমা, সাধারণ সম্পাদক এরশাদ সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক ক্যচিং মং মারমা, আইন বিষয়ক সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান, আওয়ামীলীগ নেতা, মাঈন উদ্দিন খোকা, লাথোই মারমা,মং মং মারমা, কাজী সিরাজ উদ্দিন কাউসার, তোষা মারমা প্রমুখ।

সম্মেলনে কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুইপ্রু চৌধুরীকে ও সাধারণ সম্পাদক এরশাদ সরকারকে পুনরায় স-পদে নির্বাচিত করা হয়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

পাহাড়ের বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি সংরক্ষণ-বিকাশে কাজ করছে সরকার: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এম খালিদ বলেছেন, ‘পাহাড়ের বৈচিত্রময় সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশে কাজ করছে সরকার। …

Leave a Reply