নীড় পাতা » ব্রেকিং » ‘সাজেক বাঁচাও ! ’ সম্মেলন ৮ অক্টোবর

‘সাজেক বাঁচাও ! ’ সম্মেলন ৮ অক্টোবর

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেকে ০৮ অক্টোবর সাজেক ভূমি রক্ষা কমিটি ও সাজেক নারী সমাজের প্রথম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ‘সাজেক বাচাও! বন-পরিবেশ ও বাস্তুভিটা রক্ষার্থে জীবন বাজি রেখে লড়াইয়ে প্রস্তুত হও’- এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সাজেকের গঙ্গারামদোর উজো বাজারের প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সকাল ১০.০০টার দিকে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন উপলক্ষে ভূমি রক্ষা কমিটি ও নারী সমাজ যৌথভাবে পোস্টার প্রকাশ করেছে।
সাজেক ভূমি রক্ষা কমিটি দপ্তর সম্পাদক জ্ঞানময় চাকমা সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে,‘২০০৬ সাল থেকে রাঙামাটির সাজেকের বিস্তীর্ণ পাহাড়ভূমি দখলে নেয়ার জন্য তৎকালীন শাসকশ্রেনী নানা ধরণের ষড়যন্ত্র করতে থাকে। প্রায় ২৬ হাজার সেটলার পরিবারকে সাজেকে বসতিস্থাপনের সুযোগ করে দিয়ে সাজেক সেটলারদের দ্বারা জবরদখলের পরিকল্পনা করা হয়। উক্ত পরিকল্পনার কথা জানাজানি হলে পার্বত্য চট্টগ্র্রামের রাজনৈতিক সংগঠন ইউপিডিএফ আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলে। ২০০৭-২০০৮ সালের দিকে সেটলাররা সেনা সহায়তায় সাজেকের বিভিন্ন এলাকা জোর করে দখলে নিতে থাকে। তৎকালীন সময়ে জনগণ তেমন প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি। ২০১০ সালের দিকে সাজেক ভূমিরক্ষা কমিটি ও সাজেক নারী সমাজ গঠিত হয়। তারপর থেকেই এই দুই সংগঠন সাজেকে ভূমি বেদখলের বিরুদ্ধে তীব্র সংগ্রাম ও প্রতিবাদ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে থাকে। আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ‘ভূমিই জীবন-ভূমিই মরণ’ এই চেতনা বুকে ধারণ করে ভূমি রক্ষার লড়াইয়ে শহীদ হন বুদ্ধপুদি চাকমা, লক্ষীবিজয় চাকমা ও লাদুমুনি চাকমা। এভাবে লড়াই সংগ্রামের মাধ্যমে সাজেকের জনগণ ভূমি জবরদখলদারদের হটিয়ে দিতে সমর্থ হয়। এখনো ভূমি বেদখলের নানা ষড়যন্ত্র চলছে। এবং এখনো চলছে ভূমি রক্ষার জন্য কঠোর ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম। তারই ধারাবাহিকতায় লড়াইকে এগিয়ে নিতে আগামী ০৮ অক্টোবর সকালে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সাজেক ভূমি রক্ষা কমিটি ও সাজেক নারী সমাজের সম্মেলন।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিবর্ণ পাহাড়ের রঙিন সাংগ্রাই

নভেল করোনাভাইরাসের আগের বছরগুলোতে এই সময় উৎসবে রঙিন থাকতো পাহাড়ি তিন জেলা। এই দিন পাহাড়ে …

Leave a Reply