ফাইল ছবি

সহসাই সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে রাঙামাটি শহর

রাঙামাটি শহরকে সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। রোববার রাঙামাটি জেলা মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পর্যটন শহর রাঙামাটিকে আরও নিরাপদ করতে রাঙামাটি শহরকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে, সহসাই একাজ শুরু হবে এবং রাঙামাটি পৌরসভার সামনে থেকে এ কাজ শুরু হবে বলে সভায় জানানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এই সভায় জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শিল্পী রানী রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ছুফি উল্লাহ, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ত্রিদিব কান্তি দাশ, জেলা এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহে আরেফীন, সিভিল সার্জন বিপাশ খীসাসহ জেলার সকল দপ্তর ও গণমাধ্যম কর্মীগণ। সভায় জেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা, উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

সভায় স্বাস্থ্য বিষয়ে সিভিল সার্জন বলেন, রাঙামাটি ল্যাবে করোনা টেস্টের হার কমেছে, তবে আমাদের প্রস্তুতি আছে, যদি করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসে, তাহলে সেটা সামলে নেয়া যাবে। তবে তিনি সকলকে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরার অনুরোধ করেন। তিনি আরও বলেন, মাস্ক আমাদের সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে, তাছাড়া শীতকালে ধূলো-বালি থেকেও রক্ষা পাওয়া যাবে। মাস্ক পরার ক্ষেত্রে সরকারের নির্দেশনার কথাও স্মরণ করিয়ে দেন তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) ছুফিউল্লাহ বলেন, রাঙামাটি শহরে মাদকের ব্যবহার অনেক কমেছে, এটাকে শূণ্যের কোটায় নিয়ে আসতে কাজ করছে পুলিশ, রাঙামাটির সকল জনগণকে এ কাজে পুলিশকে সহায়তা করার অনুরোধ করেন তিনি।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহে আরেফীন বলেন, রাঙামাটির ঝুঁকিপূর্ণ সড়কের কাজ দ্রুত গতিতে চলছে, আগামী বর্ষার আগেই অধিকাংশ ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক ঝুঁকি মুক্ত হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, রাঙামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি এই তিন জেলার সংযোগ সড়ক প্রশস্ত করতে পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। বর্তমান সড়ককে ২৪ ফুট প্রশস্ত করা হবে, এতে সহজেই পর্যটক ও সাধারণ মানুষ চলাচল করতে পারবে। তিনি জানান, কর্ণফুলী নদীতে সেতু নির্মাণে জাইকার সাথে কথা হচ্ছে। জাইকা অর্থায়ন না করলে সেক্ষেত্রে পরবর্তীতে করণীয় নির্ধারণ হবে।

তিনি বলেন, সওজের জায়গা চিহ্নিত করতে কাজ চলছে, কাজ শেষ হলেই সড়ক ও জনপথ বিভাগ তাদের দখলীয় জায়গা উদ্ধার ও সড়কে দু’পাশের জায়গায় মার্কিং করা হবে। সম্প্রতি পিডিবি তিন জেলার বিদ্যুৎ পরিসেবা উন্নয়নের জন্য বড় বড় কয়েকটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে, আমাদের সড়কের কাজও শুরু হবে, তাই তারা কোন কাজ শুরুর আগে আমাদের অবহিত করলে আমরা তাদের জানিয়ে দিতে পারবো কোথায় তারা বিদ্যুতের পোল স্থাপন করতে পারবে, এতে দুটি বিভাগই উপকৃত হবে আর রাষ্ট্রের অর্থেরও অপচয় হবে না।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার উত্তম খীসা বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে তেমন কোন সিদ্ধান্ত না হলেও প্রাথমিক কিছু আলোচনা হয়েছে, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এর একটা ফলাফল কেন্দ্র থেকে জানানো হবে। তিনি আরও বলেন, বেসরকারি ও সরকারি বিদ্যালয়সমূহ বকেয়া বেতন কি পরিমাণ নিতে পারবে, সে টাকা কিভাবে নিবেন সেটারও নির্দেশনা আমাদের কাছে সহসাই চলে আসবে, বিদ্যালয়গুলো সেভাবেই বেতন নিতে হবে। নন এমপিও শিক্ষকদের দ্বিতীয় বারের মত প্রণোদনার কথা হয়তো সরকার ভাবছেন, তাদের তালিকা প্রেরণের নির্দেশ পেয়ে তা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, সরকারে নির্দেশনা মোতাবেক সকল অফিসে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামুলক পালন করতে হবে, সেবা গ্রহীতাদের মাস্ক না থাকলে তাকে সেবা প্রদাণ থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। সাধারণ জনগণকে মাস্ক পরার অনুরোধ করে তিনি। পাশাপাশি ভ্রাম্যমান আদালতও পরিচালনা করা হবে বলে জানান তিনি। জেলার বাজার ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে মোবাইল কোর্ট চলছে, এটা অব্যাহত থাকবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কারাতে ফেডারেশনের ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্তদের সংবর্ধনা

বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন হতে ২০২১ সালে ব্ল্যাক বেল্ট বিজয়ী রাঙামাটির কারাতে খেলোয়াড়দের সংবধর্না দিয়েছে রাঙামাটি …

Leave a Reply