নীড় পাতা » ব্রেকিং » ‘সহসাই মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান’

আইন-শৃঙ্খলা সভায় জানালেন জেলা প্রশাসক

‘সহসাই মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান’

রাঙামাটি জেলার আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা হয়। জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শিল্পী রাণী রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুফি উল্লাহ, রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, বাঘাইছড়ি পৌর মেয়র জাফর আলী, ধম উপজেলার নির্বাহী অফিসার, চেয়ারম্যান, বিভিন্ন দপ্তর প্রধানগণ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ ও গণমাধ্যমকর্মীরা।

সভায় জানানো হয় মাদকের বিরুদ্ধে সমন্বিত অভিযান চলছে, বেশ কয়েক জন মাদক ব্যবসায়ীর নামের তালিকা প্রশাসনের হতে এসেছে তাদের বিরুদ্ধে সহসাই সমন্বিত অভিযান পরিচালনা করা হবে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ।

বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে পৌরসভা ইউনিয়ন পরিষদগুলোকে জন্মনিবন্ধন সনদ প্রদানে সতর্ক হতে অনুরোধ জানানো হয়। যাতে অপ্রাপ্ত বয়স্ক কোন মেয়েকে বয়স বাড়িয়ে বাল্য বিবাহ দিতে না পারে। কিছু অসাধু অভিভাবক কন্যা সন্তানের বয়স বাড়িয়ে বিয়ে দেন এমন অভিযোগে রাঙামাটি পৌরসভা মেয়রকে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করা হয়।

মাদক প্রসঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুফি উল্লাহ বলেন, মাদকের কুফল নিয়ে মোটিভিশন দিতে হবে, সে ক্ষেত্রে সকল উপাসনালয় থেকে এটা করা যেতে পারে। জেলার আইন-শৃঙ্খলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এক সময় রাঙামাটিতে কোনও অপরাধ হলে তার মামলা হতো না, পুলিশ বা সরকার বাদি হয়ে মামলা করতে হতো, এখন সেটা পাল্টে গেছে, কোথাও কোন অপরাধ হলে তার মামলা হয়, এতেই প্রমাণ হয় এখন মানুষ সচেতন হয়েছে। সুফি উল্লাহ বলেন, আগে রাঙামাটিতে অজ্ঞাননামা মামলা হতো, এখন ভুক্তভুগিরা নাম উল্লেখ করে মামলা করছে, এটাই আমাদের অর্জন।

স্বাস্থ্য সেবা প্রসঙ্গে বলা হয় প্রতিটি উপজেলায় ৫ জন করে ডাক্তার থাকেন, মানুষ মোটামুটি সেবা পাচ্ছে। তবে হাসপাতাল ও ডাক্তার, নার্স কোয়াটার নির্মাণের জন্য দাবি জানান উপজেলা চেয়ারম্যাগণ সে ব্যাপারে যথাযত কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার আশ্বাস প্রদান করের জেলা প্রশাসক।

রাঙামাটির যাত্রী সেবার মান বাড়াতে বিলাসবহুল গাড়ির অনুমোদন দিতে জেলা প্রশাসকের প্রতি আহবান জানানো হলে তিনি বলেন মালিক সমিতি নিয়ে একটা সমস্যা হয়েছিল, তখন রাউজান মালিক সমিতির সাথে কথা হয়েছে তার সহসাই আসবেন একটি মিটিং হবে, সেখানে সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। এছাড়াও রাঙামাটি ও রাউজান সংসদ সদস্যদের মাধ্যেও একটা বৈঠক হবে এমটা আমি শুনেছি, আশা করি এবার এটার একটি স্থায়ী সমাধান হবে।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, কাপ্তাই উপজেলায় টিউবওয়েল স্থাপন করা যায় না, ফলে আমাদের কর্ণফুলি নদীর পানি পান করতে হয়, তাই কাপ্তাই উপজেলায় ন্যানো ফিল্টার বসানোর স্থাপনের কথা কিন্তু এখনো কিছুই হয়নি। জবাবে জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এটি একটি সম্পূর্ণ নতুন প্রযুক্তি বিদেশ থেকে আমদানি করতে হচ্ছে বলে দেরি হচ্ছে, মালয়েশিয়া থেকে এই ফিল্টার বাংলাদেশের পথে রয়েছে, আশা করি এপ্রিল মাসেই স্থাপনের কাজ শুরু করা যাবে। এছাড়াও শিক্ষা, যোগাযোগ, এবং মুজিব বর্ষে করণিয় সম্পর্কে আলোপাত করা হয় সভায়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

প্রেমে ‘টানাপোড়নে’ কিশোরীর আত্মহত্যা

রাঙামাটির লংগদুতে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহত কিশোরী জান্নাতুল (১৫) উপজেলা সদর …

Leave a Reply