নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » সহযাত্রীদের সংবর্ধনায় সিক্ত ফিরোজা বেগম চিনু এমপি

সহযাত্রীদের সংবর্ধনায় সিক্ত ফিরোজা বেগম চিনু এমপি

DSC09968রাজনীতির পাশাপাশি দীর্ঘদিন যে পেশার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন ফিরোজা বেগম চিনু, এবার তার সেই দীর্ঘদিনের সহযাত্রী-সহকর্মী ঠিকাদাররা সংবর্ধিত করলেন তাকে।

সোমবার সন্ধ্যায় শহরের কাঠালতলি এলাকায় অবস্থিত কন্ট্রাক্টর কমপ্লেক্স চত্বরে বাঙালী ঠিকাদার কল্যাণ সমিতি সংবর্ধনা দেন তাদের সমিতির সদস্য ও বর্তমানে সংরক্ষিত কোটায় মহিলা সংসদ সদস্য হওয়া ফিরোজা বেগম চিনুকে।

বাঙালী ঠিকাদার কল্যাণ সমিটির সভাপতি বিশিষ্ট ঠিকাদার ইকবালউদ্দিনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র সাইফুল ইসলাম ভূট্টো,রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুর রহমান,রাঙামাটি বাঙালি ঠিকাদার কল্যাণ সমিতির সাধারন সম্পাদক মো: শাহ আলম। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন ঠিকাদার মাহফুজুর রহমান,জাহাঙ্গীর কামাল, জেবুন্নেসা রহিম,মিজানুর রহমান,মোস্তাক আহম্মদ,বেলায়েত হোসেন ভূঁইয়া। তরুন দুই ঠিকাদার মামুনুর রশীদ ও শফিউল আজম পুরো অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। DSC09971

সংবর্ধনা সভায় বক্তারা ফিরোজা বেগম চিনু জাতীয় সংসদে দেয়া প্রথম বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও চাঁদাবাজি বন্ধের দাবির বক্তব্যের সমর্থন জানিয়ে তাকে অভিনন্দন জানান এবং পাহাড়ে ঠিকাদারিসহ বিভিন্ন সেক্টওে চাঁদাবাজি বন্ধে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, ‘জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলোর বিভক্তি ও অনৈক্যের সুযোগ কিছু সাম্প্রদায়িক আঞ্চলিক দল তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য জাতীয় দলের ভেতর কিছু পাহাড়ী নেতার অনুপ্রবেশ ঘটিয়েছে,যাদের কারণে জাতীয় দলগুলো ক্রমশ: দূর্বল হচ্ছে আর আঞ্চলিক দলগুলো এর ফায়দা নিচ্ছে।’ বক্তারা বলেন,-‘আঞ্চলিক দলগুলো নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য আমাদের ব্যবহার করছে কিন্তু আমরা তা বুঝতে পারছিনা, আজ সময় এসেছে ঐক্যবদ্ধভাবে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার। ’

সংবর্ধনা সভায় ঠিকাদার নেতারা, পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নকাজে ঠিকাদারদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে, এই অঞ্চলের পাহাড়ী ও বাঙালি ঠিকাদারদের মধ্যে বিদ্যমান বৈষম্য নিরসন করার পদক্ষেপ তিনি সংসদ সদস্যের প্রতি দাবি জানান। সংবর্ধনা সভায় বক্তব্য রাখা প্রায় সকল ঠিকাদার নেতাই ঠিকাদারি পেশায় অব্যাহত চাঁদাবাজির উৎপাতের কথা তুলে ধরে, চাঁদাবাজির কারণে ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। DSC09972

ঠিকাদারদের নানান দাবির প্রেক্ষিতে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে সবসময় দেশি বিদেশী নানান শক্তি ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকে। এইসব অপশক্তি পাহাড়ী বাঙালী বিরোধ সৃষ্টি করে নিজেদের ফায়দা লুটতে ব্যস্ত থাকে,তাই আমাদের এবিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। কেউ যেনো পাহাড়ী বাঙালীর মধ্যে কোন বিভেদ বা অনৈক্য সৃষ্টি করে ফায়দা তুলতে না পারে সেইজন্য সবাইকে সতর্ক থাকার ও ইতিবাচক ভূমিকা রাখার পরামর্শ দেন তিনি।

সংবর্ধনা সভায় নতুন সংসদ সদস্যকে বাঙালি ঠিকাদার সমিতির পক্ষ থেকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বেইলি সেতু ভেঙে রাঙামাটি-বান্দরবান সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় রাঙামাটি-বান্দরবান প্রধান সড়কের সিনামা হল এলাকার বেইলি সেতু ভেঙে পাথর বোঝাই ট্রাক …

Leave a Reply