নীড় পাতা » ফিচার » ক্যাম্পাস ঘুড়ি » ‘সময়ের বাতিঘর ছিলেন নির্মলেন্দু চৌধুরী’

‘সময়ের বাতিঘর ছিলেন নির্মলেন্দু চৌধুরী’

Pic-10-05-14-4‘সময়ের বাতিঘর ছিলেন পর্যটন শহর রাঙামাটির ঐতিহ্যবাহি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক প্রয়াত নির্মলেন্দু চৌধুরী। জেলার শিক্ষাঙ্গনের একজন জ্যোতির্ময় পুরুষ ছিলেন তিনি। এই বিদ্যালয়ের সূচনাকাল থেকে বর্তমান উত্তরণ ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য অংশ জুড়েই ছিলো তার সপ্রতীভ বিচরণ। তাঁর নিরলস শ্রম মেধা ও নিষ্ঠার ফসল আজকের সনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এই শাহ বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়। আর আমি এই বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হয়ে নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করি।’
কথাগুলো বললেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা।

শনিবার বিদ্যালয় হলরুমে অনুষ্ঠিত নির্মলেন্দু মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের শিক্ষা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্মলেন্দু মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রণজিৎ কুমার বড়–য়া’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান তরুন কান্তি ঘোষ, রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী হাজী মূছা মাতব্বর, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সুনীল কান্তি দে, শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম মঈন উদ্দিনসহ বিদ্যালয়ের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দাবি দাওয়া প্রসঙ্গে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা বলেন, বিদ্যালয়ের হলরুম বর্তমান অবস্থার চেয়ে যতটুকু বড় এবং আধুনিক করা যায় তার সবটুকুই করে দেবে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড। এছাড়া পার্বত্য মন্ত্রণালয় থেকে একলাখ টাকার অনুদানের পাশাপাশি বিদ্যালয়ের সকল প্রকার খেলাধুলা ও আনুষঙ্গিক সরঞ্জাম প্রদানেরও আশ্বাস দেন তিনি। পরে বিদ্যালয়ের বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও ক্রেস্ট তুলে দেন প্রধান অতিথি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

ফুটবলের বিকাশে আসছে ডায়নামিক একাডেমি

পার্বত্য এলাকা রাঙামাটিতে ফুটবলকে আরও জনপ্রিয় করে তোলা, তৃনমূল পর্যায় থেকে ক্ষুদে ফুটবল খেলোয়াড় খুঁজে …

Leave a Reply