নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » ‘সমাজের প্রতিটি মানুষকে ফুলের মতো ফুটতে হবে’

‘সমাজের প্রতিটি মানুষকে ফুলের মতো ফুটতে হবে’

02‘মানুষের বাগান করতে চাইলে সমাজের প্রতিটি মানুষকে ফুলের মতো ফুটতে হবে। যে সমাজে মানুষ ফুলের মতো ফুটতে পারেনা সে সমাজের মানুষের বাগান হয় না। তাই এমন ফুল ফুটাতে হবে যেখানে পুরো দেশটাই হবে মানুষের বাগানে ভরপুর। পুরো সমাজই হবে প্রকৃত মানুষের।’

বৃহস্পতিবার রাত ১০.৩০ টায় রাঙামাটির গর্জনতলীতে ভাতৃ দ্বিতীয়া অখন্ড মহাসম্মেলনের শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়ের সচিব ড.রনজিৎ কুমার বিশ্বাস এসব কথা বলেন। তিন পার্বত্য জেলা অখন্ড সংগঠন এর আয়োজনে এবং বাংলাদেশ সম্মিলিত অখ- সংগঠনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত সম্মেলনে মৃদুল কান্তি দে এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পুলিশ সুপার আমেনা বেগম, এ্যাডভোকেট মৃদুল গুহ এ্যাডভোকেট সুখময় চক্রবর্ত্তী।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন এই সমাজকে সকল মানুষের পৃষ্ঠপোষকতা করা দরকার। একটি ফুলের বাগানের মতো। এক ধরনের ফুল দিয়ে শুধু একটি ফুলের চাষ হবে কিন্তু বাগান হবেনা। একটি বাগানে অনেকগুলো ফুলের সমারোহ থাকবে। আমাদের যারা পরিচালিত করেছেন তারা মানুষের বাগান করতে চেয়েছেন। তাই সকল মানুষের মধ্যে চেতনার জাগ্রতবোধ গড়ে তুলতে হবে। দেশের ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে যেমন দায়িত্ব -কর্তব্য পড়ে তেমনি প্রত্যেকটা মানুষের মাঝে দেশের প্রতি দায়িত্ব¡ কর্তব্য বৃদ্ধি করতে হবে। যে বাংলাদেশের জন্য আমরা গর্বিত সেদেশের ঐতিহ্য-সংস্কৃতি আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। এ দেশ সম্পর্কে আমাদের নতুন প্রজন্ম অনেক কিছু জানেনা। এ দেশটি কেমন তাই দেশের সকল নাগরিককে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে দেশ সম্পর্কে দেশের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে হবে।03

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা পুলিশ সুপার আমেনা বেগম বলেন,ধর্ম একটি গোষ্ঠী এবং সমাজকে নিয়ন্ত্রন করে। পৃথিবীতে সভ্যতা যত এগিয়ে যাচ্ছে তেমনি ধর্মীয় ভ্রাতৃত্ববোধ ততবেশি এগিয়ে যাবে। তাই আমাদের সকলের মাঝে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে যাতে করে সকল ধর্ম-বর্ন-গোত্রসহ সকল মানুষের মাঝে সুন্দর সম্পর্ক বজায় থাকে। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ সম্মিলিত অখ- সংগঠনের সাধারন সম্পাদক তাপস কুমার সরকার,ত্রিপুরা কল্যান ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা সাগরিকা রোয়াজা, রাঙামাটি অখন্ড উপাসনা মন্দিরের সভাপতি প্রানেশ্বর ত্রিপুরা,এ্যাডভোকেট সুরঞ্জন কুমার লোধ, এ্যাডভোকেট মৃদুল গুহ এ্যাডভোকেট সুখময় চক্রবর্ত্তী।
সভায় বক্তারা আরো বলেন বলেন,সব ধর্ম সম্পর্কে সকলের জানা উচিত,সব ধর্ম হচ্ছে জ্ঞানের ভান্ডার। মানুষ ধর্ম সম্পর্কে যত জানবে মানুষের মাঝে ধর্মীয় জ্ঞানের পরিধি তত বৃদ্ধি পাবে। মানুষ যদি একসাথে শান্তি কামনার চিন্তা না করে তাহলে পৃথিবীতে শান্তি আসবেনা বলেও মন্তব্য করেন বক্তারা।04

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে ১০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার  রাঙামাটির লংগদু …

Leave a Reply