নীড় পাতা » ব্রেকিং » সবুজ পাহাড়ে কমলার বিপ্লব

সবুজ পাহাড়ে কমলার বিপ্লব

ফল উৎপাদনে রাঙামাটির সুনাম বরাবরই। পার্বত্য রাঙামাটিতে আম, কাঁঠাল, লিচু, জাম্বুরা, আনারসের পাশাপাশি এখন নতুন করে যুক্ত হয়েছে কমলা। কমলা চাষ উপযোগী ভূ-প্রকৃতির কারণে অন্যান্য ফলের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কমলা চাষ। ইতোমধ্যে জেলার সাজেক ও নানিয়ারচর উপজেলার কমলা খ্যাতি অর্জন করেছে। এ অবস্থায় আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ায় কৃষকরা ঝুঁকছেন কমলা চাষে। জেলায় এ বছর ৭শ ৯০০ হেক্টর জমিতে কমলা চাষ হয়েছে। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা আট হাজার মেট্রিক টন। গত বছর উৎপাদন হয়েছিল ৭ হাজার ৬শত মেট্রিক টন কমলা। কৃষি কর্মকর্তার আশা পাহাড়ের দিন দিনি যেভাবে কমলার চাষ বাড়ছে দেশের চাহিদা মিটিয়েও বিদেশে রফতানি করা যাবে।

বাগান মালিক কৃষ্ণলাল চাকমা বলেন, এক সময় আমার এই পাহাড়টি পতিত অবস্থায় ছিল। গত কয়েক বছর আগে কমলা চাষ শুরু করলাম। যখন কমলার ফল ভালো হচ্ছে এই দেখে আসে পাশের অনেকে এখন কমলা চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছে। এই কমলা স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়েও রাঙামাটির বাইরে প্রচুর চাহিদা রয়েছে। চাহিদা থাকায় দামও ভালো পাওয়া যাচ্ছে।

খুচরা বিক্রেতারা মধু লাল চাকমা ও সনজিত চাকমা বলেন, আমরা দুজনে চারটি বাগন কিনেছি। ভালই ফলন হয়েছে এবারও। চারটি বাগান কিনেছি ১ লক্ষ টাকা দিয়ে এবং ইতোমধ্যে আমরা প্রায় ২ লক্ষ টাকার ফল বিক্রি করেছি। আরো ৫০ হাজার টাকার মতো কমলা বিক্রি করতে পারবো।

বনরূপা বাজার কমলা ক্রেতা মো. হারুন বলেন, বাজারে যে কমলা পাওয়া যায় তার চেয়ে পাহাড়ি এই কমলা স্বাদে অন্য রকম। কমলা ফরমালিনমুক্ত হওয়ায় আমি আমার বাচ্চাদের এই কমলা কিনে দি।

শহরের কলেজ গেইট এলাকায় কমলা ক্রেতা মো. সাইফুল ইসলাম দাম নিয়ে অভিযোগ জানিয়ে বলেন, এক জোড়া কমলা ৫০টাকা একটু বেশি মনে হচ্ছে। এক জোড়া ২০-২৫ টাকা হলে সবাই কিনতে পারতো। ইচ্ছে থাকলের দামের সাবাইকিনতে পারছে না।

রাঙামাটি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক পবন কুমার চাকমা বলেন, পার্বত্য এলকায় জলবায়ুর কারনে সব ফলই চাষাবাদ বরাবরই ভালো হয়। পাহাড়ি এলাকায় কমলা চাষ বৃদ্ধির ফলে বিদেশ থেকে কমলা আমদানি কমে আসবে সাথে সাথে বৈদিশিক মুদ্রাও সাশ্রয়ী হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বাজার যে কমলা পাওয়া যায় কৃষকরা দামও ভালো পাচ্ছে এই কারনে কৃষকরা চাষে উৎসাহ পাচ্ছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিবর্ণ পাহাড়ের রঙিন সাংগ্রাই

নভেল করোনাভাইরাসের আগের বছরগুলোতে এই সময় উৎসবে রঙিন থাকতো পাহাড়ি তিন জেলা। এই দিন পাহাড়ে …

Leave a Reply