নীড় পাতা » ব্রেকিং » সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটনের আহ্বান

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটনের আহ্বান

chinuuরাঙামাটিতে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তুলে মূলোৎপাটনের আহ্বান জানিয়েছেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু। তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে সন্ত্রাস জঙ্গিদের আস্তানা গড়ে তুলতে দেয়া হবে না।

শনিবার দুপুরে রাঙামাটি জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার বিষয়ে এক আলোচনা সভায় উদ্বোধকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও বিশিষ্ট ধর্মীয় বক্তা আমিনুল ইসলাম আমিন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ মাহবুবুর রহমান, প্যানেল মেয়র জামাল উদ্দীন। অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন ইসলামি ফাউন্ডেশন প্রধান কার্যালয়ের মুফাসসির ড. মাওলানা আবু ছালেহ পাটোয়ারী, ইসলামি ফাউন্ডেশন কুমিল্লার মাস্টার ট্রেইনার মাওলানা মোঃ নোমান আলমগীর, ঢাকা ইমাম প্রশিক্ষক একাডেমীর ধর্মীয় প্রশিক্ষক মাওলানা মোহাম্মদ জাকির হোসেন। রাঙামাটি ইমামদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন জাতীয় খতিব কাউন্সিল সভাপতি ক্বারী মাওলানা মোহাম্মদ ওসমান গণি চৌধুরী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি ইসলামি ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক সরকার সরোয়ার আলম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। কিন্তু এই ধর্মকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য একটি গোষ্ঠি পাঁয়তারা করছে। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডকে ইসলাম কোনওদিন সমর্থন করেনি, করবেও না। যারা দেশে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করছে এবং দেশের উন্নতিকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে তারা দেশ ও জাতির শত্রু, তাদেরকে মুসলমান বলা যাবে না। তিনি আরো বলেন, যারা বর্তমানে জঙ্গি কর্মকান্ড করছে তাদের সাথে ইসরাইলের সাথে একটি যোগাযোগ আছে। এছাড়া তারা যেভাবে মানুষ হত্যা করছে তা ইসলাম সমর্থন করে না। এতে বোঝা যায় তারা ইহুদিদের সাথে যুক্ত হয়ে এমন কাজ করছে। ইসলামে বলা আছে, যে একজন মানুষকে হত্যা করলো, সে যেনো পুরো মানব জাতিকে হত্যা করেছে। এতে বোঝা যায় ইসলাম মানব হত্যাকে সমর্থন করে না। ‘মওদতীর ইসলাম আর মদিনার ইসলামের মধ্যে পার্থক্য আছে’ এমন বক্তব্য করে তিনি আরো বলেন, মওদতীর ইসলামে যদিও হত্যা করা ভালো কিন্তু মদিনার ইসলাম হত্যা করা পাপ।

উদ্বোধকের বক্তব্যে এমপি ফিরোজা বেগম চিনু বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের সাথে ইসলামের কোনও সর্ম্পক নেই। ইসলাম ও জঙ্গিবাদ এক নয়। যারা জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে যুক্ত আছে তাদের কোন ধর্ম থাকতে পারে না।

সন্তানের প্রতি অভিভাবকের সঠিক নজর রাখার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, অভিভাবকদেরকে সন্তানের প্রতি নজর রাখতে হবে। সন্তান যাতে ভুল পথে না যায় তার জন্য অভিভাবককে সচেতন হতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান বলেন, যারা বিশে^ ফিতনা সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে তারা মুসলমান হতে পারে না। যদি মুসলমানই হত তবে রাসূলের এই বাণীকে তারা ভুলে যেতে পারতো না। তিনি আরো বলেন, আল্লাহ পাক তাঁর রাসূলকে পাঠিয়ে আমাদেরকে দেখিয়ে দিয়েছেন কেমন ধর্ম পালন করতে হবে এছাড়া জীবনের পূর্ণাঙ্গ বিধান নামে পরিচিত আল-কোরআন আমাদেরকে দিয়ে গেছেন। কিন্তু আজ আমরা এই কোরআন ও রাসূলের বাণী রিসার্চ করছি না বলে ভুল পথে যাত্রা করছি। তাই সকলের প্রয়োজন এই কোরআন ও রাসূলের বাণীগুলোকে রিসার্চ করা।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন বলেন, ইসলাম সকলের জন্য শান্তির কথা বলে। ইসলামে জঙ্গি ও সন্ত্রাস নামে কোনও কিছু নেই। এসব ইসলাম সমর্থন করে না। তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় লেখা হয় ইসলামি জঙ্গি সংগঠন বা সন্ত্রাসী সংগঠন, ইসলাম যেখানে জঙ্গি ও সন্ত্রাস সমর্থন করে না সেখানে এসব লেখা ঠিক নয়। তাই তিনি এসব না লেখার জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে আহ্বান জানান। এছাড়া যুব সমাজকে এই দুষ্কর্ম থেকে দূরে থাকারও আহ্বান জানান।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জুরাছড়িতে গুলিতে নিহত কার্বারির ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় স্থানীয় এক কার্বারিকে (গ্রামপ্রধান) গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী সন্ত্রাসীরা। রোববার …

Leave a Reply