নীড় পাতা » ব্রেকিং » সনদ বিতরণ ও কৃতি শিক্ষার্থী সম্বর্ধনা

সনদ বিতরণ ও কৃতি শিক্ষার্থী সম্বর্ধনা

DSC09212--666666রাঙামাটির লংগদুতে সেনা জোন (২ইস্ট বেঙ্গল) এর উদ্যোগে কমিউনিটি কম্পিউটার প্রশিক্ষণ সনদপত্র বিতরণ ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সম্বর্ধনার আয়োজন করা হয়।

রোববার বেলা এগারটায়, লংগদু সেনা জোন সদরে আয়োজিত সনদপত্র ও সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে জোনের (২ইস্ট বেঙ্গল) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আব্দুল আব্দুল আলীম চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, ২০৩ পদাতিক ব্রিগেট ও খাগড়াছড়ি রিজিয়নের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল স.ম. মাহাবুব-উল-আলম (এসজিপি, পিএসসি)।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রিজিয়ন কমান্ডার স.ম. মাহাবুব-উল-আলম বলেন, আমি প্রশাসনের সকল বিভাগকে অনুরোধ করছি এই এলাকার আপামর জনসাধারণের। পাহাড়ী বাঙ্গালী নির্বিশেষে সকলকে তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি, তাদের জ্ঞান বৃদ্ধি এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে যে দক্ষতার প্রয়োজন কর্মসংস্থানের জন্য সে সমস্ত বিষয়ে তাদের প্রস্তুত করতে হবে, পথ দেখিয়ে দিতে হবে। এখানকার ছেলে মেয়ে যারা উচ্চ শিক্ষা নিতে গিয়ে প্রতিবন্ধকতায় ভোগেন, প্রশাসন থেকে শুরু করে সকল বিত্তবান নাগরিকদের উচিত তাদের সহযোগিতা করা। এখানকার ছেলে মেয়েরা এখন ভালো রেজাল্ট করছে। তাদের উৎসাহ দিতে হবে শিক্ষার মান বাড়াতে হবে। এই প্রত্যন্ত অঞ্চলে যারা শিক্ষকতার দায়িত্ব পালন করছেন এবং যারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন সকলকে আমি অভিনন্দ জানাচ্ছি। সর্ব মহল থেকে চেষ্ঠা করলে এই এলাকায় আলো ভালো রেজাল্ট তৈরী যাবে। এই এলাকায় অর্থনৈতিক কর্মকান্ড সম্পর্কে আমার ভালো ধারনা রয়েছে। এখানকার জনসাধারণকে অর্থনৈকিতভাবে স্বাবলম্বি হতে হলে বিকল্প আয়ের চিন্তা করতে হবে।

এসময় লংগদু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন আহম্মদ, ভাইট্টাপাড়া আনসার ব্যাটালিয়নের কমান্ডার সোহেলুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নাছির উদ্দিন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার জমির উদ্দিন সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান ও শিক্ষার্থীগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল স.ম. মাহাবুব-উল-আলম আরো বলেন, সবার কাছে অনুরোধ যারা শিক্ষিত আছেন, বিদ্যান, জ্ঞানী আছেন তারা তুলনামুলকভাবে পিচিয়ে পড়াদের বোঝাবেন। জ্ঞানের আলো সমাজে বিকশিত করতে হবে। জ্ঞানছাড়া কোন সমাজ এগুতে পারে না। জ্ঞানহীন ব্যাক্তি পশুর সমান। সেজন্য জ্ঞান নির্ভর সমাজ গড়ে তুলতে হবে। জ্ঞান নির্ভর সমাজ গড়ে তুলতে হলে বর্তমান সময়ে আমাদেরকে প্রযুক্তি নির্ভর হতে হবে। তাই প্রযুক্তির দক্ষতা অর্জন করতে হবে। প্রযুক্তি থেকে দূরে সরে থাকলে আমরা এই গ্লোবাইজনের কিশ্বে বেশিদূর এগিয়ে যেতে পারবোনা। আমরা সে জন্য শিক্ষার্থীদের কম্পিটার প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষতা অর্জন এবং পড়া লেখার জন্য সম্বর্ধনা দিয়ে উৎসাহ দিচ্ছি। তারা সুন্দরভাবে পড়া-লেখা করতে পারবে, খারাপ জিনিস থেকে দূরে থাকতে পারবে। সোনার বাংলাদেশ ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সকলকে এগিয়ে আসার জন্য তিনি সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

শেষে প্রধান অতিথি ৫৬ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্পিউটার প্রশিক্ষনের সনদ ও ৪৯ জন মেধাবী শিক্ষার্থীদের সম্বর্ধনার ক্রেস্ট তুলে দেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্য বিভাগকে সুরক্ষা সামগ্রী দিলো রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাঙামাটির ১২টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রসমূহে স্বাস্থ্য …

Leave a Reply