নীড় পাতা » পাহাড়ের রাজনীতি » ‘সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সংগঠনের জন্য কাজ করতে হবে’

‘সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সংগঠনের জন্য কাজ করতে হবে’

03‘আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। সংগঠনের মধ্যে কাজের প্রতিযোগিতা থাকবে। সকলে মিলেমিশে কাজ করলে সংগঠনও এগিয়ে যাবে। শুক্রবার বিকালে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ মিলনায়তনে কেন্দ্রীয় কমিটি কর্তৃক অনুমোদিত রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের নতুন কমিটি ও উপদেষ্টা মন্ডলীর পরিচিতি সভায় সভাপতির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন।

জেলা কমিটির সাধারন সম্পাদক মো: মুছা মাতব্বরের পরিচালনায় সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা,এ্যাডভোকেট পরিতোষ কুমার দত্ত,রুহুল আমিন,মাহবুবুর রহমান।

সভায় দীপংকর তালুকদার আরো বলেন,২২ মাস পর রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বিগত ২২ মাসে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা সহযোগিতা না করলে কেন্দ্রীয় কর্মসুচী পালন করা সম্ভব হতো না।

তিনি উপস্থিত জেলা আওয়ামীলীগের সকল সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, এবার জেলা কমিটিতে নবীন-প্রবীনের সম্মিলন ঘটানো হয়েছে। রাঙামাটিতে আওয়ামীলীগের নেতার অভাব না থাকায় অনেককে কমিটিতে রাখাও সম্ভব হয়নি। এখানে নবীন-প্রবীণদের সম্মিলনের ফলে গতবারের চেয়ে এবার জেলা কমিটি আরো শক্তিশালী হয়েছে।

দীর্ঘ ২২ মাস পর রাঙামাটি পার্বত্য জেলার বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় দীপংকর তালুকদারকে সভাপতি এবং হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩৭ সদস্যের সম্পাদকমন্ডলীসহ রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। গত ৫ অক্টোবর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা এবং সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম স্বাক্ষরে কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। এর আগে ২০১২ সালের ৮ ডিসেম্বর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্মেলন কক্ষে জেলা সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেই সময় বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায়  দীপংকর তালুকদার নির্বাচিত হলেও সাধারণ সম্পাদক পদে হাজী মুছা মাতব্বর ভোটে নির্বাচিত হন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিবর্ণ পাহাড়ের রঙিন সাংগ্রাই

নভেল করোনাভাইরাসের আগের বছরগুলোতে এই সময় উৎসবে রঙিন থাকতো পাহাড়ি তিন জেলা। এই দিন পাহাড়ে …

Leave a Reply