নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » শেষ হয়েছে অস্বস্তিকর ৬০ ঘন্টার হরতাল !

শেষ হয়েছে অস্বস্তিকর ৬০ ঘন্টার হরতাল !

hhhhশেষ হয়েছে ১৮ দলের ডাকা টানা ৬০ ঘণ্টার অস্বস্তিকর হরতাল। টানা হরতালে রাঙামাটির জনজীবনে বিরূপ প্রভাব পড়েছে। সরকারি কর্মচারি-কর্মকর্তারা হেঁটে অফিসে যাতায়াত করেছে। সরকারি কলেজ,বিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কলেজ খোলা থাকলেও শিক্ষার্থী ছিলোনা বললেই চলে। বাড়ীর পাশেল বেসরকারি বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ছিলো কম । গত তিনদিনে শহর থেকে কাঁচা পণ্য নিয়ে কোনো ট্রাক শহর ছেড়ে যায়নি। টার্মিনালে ট্রাক বোঝাই কাঁচা পণ্য দেখা গেলেও হরতালে তা নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে নিয়ে যেতে পারেনি। অনেক পণ্য আটকে পড়ে নষ্ট হয়ে গেছে বলে দাবি কাঁচামাল ব্যবসায়িদের।

টানা ৬০ ঘণ্টার হরতালে জেলা শহর থেকে উপজেলায় কোনো লঞ্চ যাতায়াত করেনি। এতে এক অর্থেই বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে সবগুলো উপজেলা। শহরের একমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল না করায় জনসাধারণের দুর্গতির সীমা ছিলো না। আর বরাবরের মতোই হরতালে দুরপাল্লার সকল যান চলাচল বন্ধই ছিলো।

প্রথম দুইদিনের মতো বুধবারও বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ রাজপথে অবস্থান করে। নেতৃবৃন্দ রাজপথে অবস্থানের কারণে কড়া হরতাল পালন হতে দেখা যায়। মাঝে মাঝে খন্ড খন্ড মিছিলও বের করে। আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে পুলিশ শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে অবস্থান নেয়। এক সপ্তাহের ব্যবধানে দুইবার টানা ৬০ঘণ্টার হরতালে জনজীবনে অস্থিরতা বিরাজ করছে। পাহাড়ের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বলে মন্তব্য স্থানীয় জনসাধারণের।

হরতালের কারণে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছে জেলার পর্যটন শিল্পও। হোটেল মোটেল ব্যবসায়ীরাও জানিয়েছেন নিজেদের আর্থিক ক্ষতি ও ক্ষোভের কথা। সবমিলিয়ে পার্বত্য রাঙামাটিবাসীর জন্য অস্বস্তিকর ৬০ ঘন্টা পাড় হলো।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

ফুটবলের বিকাশে আসছে ডায়নামিক একাডেমি

পার্বত্য এলাকা রাঙামাটিতে ফুটবলকে আরও জনপ্রিয় করে তোলা, তৃনমূল পর্যায় থেকে ক্ষুদে ফুটবল খেলোয়াড় খুঁজে …

Leave a Reply