শেষ প্রণাম

বৈশাখের দাবদাহে তপ্ত ধরনী মাতা
আমি হেঁটে মাঠ, মেঠোপথ, বহুদূর।
জানি, ফেলে যাবো এই পথ একদিন
চিরচেনা পথঘাট, বাঁশবন।
ঘাসফুল সবুজের মেলা
বাঁশ পাতার মর্মর ক্রন্দন।
নীলাভ আকাশে স্নিগ্ধ মেঘমেলা
অজস্র বুনোফুল পাখীর কূজন।
আর শিশুদের খেলাধূলা কোলাহল
রবে কি গো? পৃথিবীতে কোন স্মৃতি মম।
কোন পদচিহ্ন স্মৃতি ভরা
হৃদয়ের নিভৃত দীর্ঘশ্বাস প্রিয় কথামালা?
এখানে এই পাহাড়ের শ্যামলিমায়
কোন বনান্ত ছায়ায় বসে রোদের
লুকোচুরি খেলা, বিরাট এক বট বৃক্ষ
থেকে শুকনোপাতা ঝড়ে অবিরাম।
হৃদয়ের যত ভালোবাসা শিশুদের প্রতি
মানুষের জন্যই যত মমতার ছায়া।
ইটের পাঁজরে মোর একবুক ভালোবাসা
গোপন কোন অশ্র“জল?
রবে কিগো? অথবা অজস্র শিশুদের মাঝে
লুকানো কোন সোনালী স্বপন
ভারাক্রান্ত বৈশাখের তপ্ত দাবদাহে
আকাশের নিঃসীম নীলিমার দিকে চেয়ে
বুক ভরে যায় তপ্ত দীর্ঘশ্বাসে…।
সংসারের এই মরু মায়া, হৃদয়ে ফেলেছে ছায়া
পথচারী আজি অন্তিম গোধূলী বেলার।
জীবনের শূণ্যতার মাঝে হিসেবের পাতা
বড় গোলমেলে, তবু কিসে এক আনন্দ বেদনা
বাজে! অন্তরের গভীর সাগরে
সংগোপনে রাখা কোন বীণা বা সেতারে।
কি পেয়েছি সারটি জীবন? হেঁটেছি পাহাড়, নদী
মরুভূমি এক অপরিমিয় তৃষায়…।
তবু সবকিছু হারিয়েও এই জীবনে
পেয়েছি, যেটুকু তার মূল্য যে অসীম।
ওগো পুষ্পিত বাগানে মোর স্বর্গের শিশুরা
আর পৃথিবীর মানুষ…
তোমাদের ভালোবেসে, এই আসন খানি
পূর্ণ হয়ে উঠিয়াছে ভরি।
ভালবাসিয়াছি ঐ মহৎ বট বৃক্ষের ছায়া
উজ্জ্¡ল সোনালী রোদ, চেঙ্গী তীর আর
অরণ্য রাজীব সবুজ শ্যামলিমা
কাশবন ধূ—ধূ বালুচর।
ঝরাপাতার ক্রন্দন ধ্বনিতে ওঠেছি চমকে
জীবনের সূর্য্য আজ অস্তমিত প্রায়
ক্লান্ত দেহমন তবু হে পৃথিবী
লহো মোর অর্ঘভাব, শেষ প্রণাম।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিএনপি’র প্রচারপত্র বিতরণ

রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধে জনসচেতনতামূক প্রচারণা ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার …

Leave a Reply