নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » শিবিরের সভাপতির পর এবার সেক্রেটারিও জেলে

শিবিরের সভাপতির পর এবার সেক্রেটারিও জেলে

shibirসভাপতি মুসলিম উদ্দিনের পর এবার গাড়ী ভাংচুরের অভিযোগে গ্রেফতারের পর জেলে পাঠানো হলে রাঙামাটি জেলা শিবিরের সাধারন সম্পাদক মোঃ নুর মোহাম্মদকে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাঙামাটিতে জামাত শিবিরের ডাকা হরতালে অটোরিক্সা ভাংচুরের ঘটনায় জেলা শিবিরের সাধারন সম্পাদক নুর মোহাম্মদকে গ্রেফতার করে কোতয়ালি থানা পুলিশ। তাকে আদালতে আনা হলে আদালত জামিন না মজ্ঞুর করে কারাগারে পাঠায়।

আটক নুর মোহাম্মদসহ ৪/৫ জন শিবিরকর্মী বৃহস্পতিবার সকালে বনরূপায় একটি অটোরিক্সা ভাংচুর করার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর আগে অন্য একটি মামলায় জেলা শিবিরের সভাপতিতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ,সেও বর্তমানে কারাগারে আছে।

রাঙামাটি শহর শিবিরের সভাপতি নুর জামাল জানিয়েছেন,শিবিরের জেলা সভাপতি দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে অন্তরিন আছেন,বৃহস্পতিবার ইসলামী সেন্টার থেকে কোতয়ালি থানা পুলিশ শিবিরের জেলা সাধারন সম্পাদক নুর মোহাম্মদকেও গ্রেফতার করেছে। জেলা সভাপতি মুসলিমউদ্দিনের মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে ইসলামী সেন্টারে অবসস্থানকালীর সময়েই তাকে আটক করা হয়েছে বলে ফেসবুক স্ট্যাটাসে দাবি করেন তিনি।

তবে কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল ইমতিয়াজ জানিয়েছেন,গাড়ী ভাংচুর সুনির্দিষ্ট অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত,একাত্তরের মানবতবিরোধী অপরাধের বিচার শুরু হওয়ার পর সারাদেশের মতো পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতেও সহিংস হওয়ার চেষ্টা করে ইসলামী ছাত্র শিবির। তবে এখানে খুব একটা সুবিধা করতে না পেরে মাঝে মাঝে চোরাগোপ্তা হামলায় টেক্সী ভাংচুর,২/৩ মিনিটের ঝটিকা মিছিল এবং ভোররাতে টায়ার জ্বালিয়ে নিজেদের অস্তিত্ব জানান দেয়ার চেষ্টা করে মৌলবাদী হিসেবে সমালোচিত এই ছাত্র সংগঠনটি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিবর্ণ পাহাড়ের রঙিন সাংগ্রাই

নভেল করোনাভাইরাসের আগের বছরগুলোতে এই সময় উৎসবে রঙিন থাকতো পাহাড়ি তিন জেলা। এই দিন পাহাড়ে …

Leave a Reply