নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » শিক্ষা প্রকৌশলের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

শিক্ষা প্রকৌশলের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

shikkha-office-02রাঙামাটি শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী নওজেশ আলীর বিরুদ্ধে অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা, দীর্ঘসূত্রিতা ও দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন জেলার দুই প্রভাবশালি ঠিকাদার সমিতি। শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী বরাবরে উপজাতীয় ঠিকাদার কল্যাণ সমিতি ও বাঙালি ঠিকাদার কল্যাণ সমিতি পৃথক পৃথকভাবে লিখিত অভিযোগ প্রেরণ করে।

অভিযোগে বলা হয়, নির্বাহী প্রকৌশলী নওজেশ আলী দরপত্র আহ্বান ও ঠিকাদারের বিল প্রদান, জামানত উত্তোলন, সংশোধিত প্রাক্কলন মূল্যায়ন অনুমোদন, ডিজাইন সরবরাহ ইত্যাদি বিষয়ে দীর্ঘসূত্রিতার আশ্রয় নেন। সম্পাদিত কাজের বিল প্রদান, জামানত উত্তোলন ও ফান্ড বরাদ্দের জন্য তিনি অতিরিক্ত অর্থ আদায় করেন অন্যথায় ইচ্ছাকৃতভাবে বিল প্রদানে বিলম্ব করেন। এতে ঠিকাদারদের প্রচুর আর্থিক সম্মুখীন হতে হয়। এতে আরো অভিযোগ করা হয়, কোনো দরপত্র গ্রহণ করার পর দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির সভা আহ্বান না করে কমিটির সদস্যগণের অগোচরে গৃহীত দরপত্রের দর ও কাগজপত্র পরিবর্তন/পরিবর্ধন করে সেলফোনের মাধ্যমে ঠিকাদারগণকে প্রচুর অর্থের বিনিময়ে কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেন এবং কেউ অপারগতা প্রকাশ করলে অন্য ঠিকাদারগণকে প্রস্তাব দেন। এ প্রক্রিয়ায় দরপত্র গ্রহণ করার চার-পাঁচ মাসের মধ্যে ঠিকাদার নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়ায় এলাকায় উন্নয়ন কাজ ব্যাহত হচ্ছে। তাঁরা আরো জানান, প্রতিমাসে একবার জেলা সমন্বয় সভায় উপস্থিত থাকা ছাড়া বাকী সময় তিনি কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকেন। ঠিকাদাররা দাবি করেন, দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় অত্যন্ত কষ্টের সাথে নির্মাণ কাজসমূহ সম্পাদন করার পরও নির্বাহী প্রকৌশলীর অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা, দীর্ঘসূত্রিতা ও দুর্নীতির কারণে তাদের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার পাশাপাশি পিছিয়ে পড়া এ পাহাড়ি অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো তৈরিতে পেছনে পড়ে যাচ্ছে।

রাঙামাটি শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আয়াত আলী নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, এর আগে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী রাঙামাটির পরিদর্শনকালে ঠিকাদাররা বিষয়গুলো তাঁকে অবহিত করে। তিনি ঠিকাদারদের একমাসের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন। আয়াত আলী বলেন, নির্বাহী প্রকৌশলীর ফিল্ডের কাজ বেশি। ওনাকে বিভিন্ন সময় হেড অফিস ও বিভিন্ন মিটিংয়ে থাকতে হয়।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য নির্বাহী প্রকৌশলী নওজেশ আলীর মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করেও সাড়া মেলেনি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বেইলি সেতু ভেঙে রাঙামাটি-বান্দরবান সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় রাঙামাটি-বান্দরবান প্রধান সড়কের সিনামা হল এলাকার বেইলি সেতু ভেঙে পাথর বোঝাই ট্রাক …

Leave a Reply