নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » শান্তিচুক্তি ‘বাতিল করা’র দাবিতে বান্দরবানে ‘কালোপতাকা’ প্রদর্শন

শান্তিচুক্তি ‘বাতিল করা’র দাবিতে বান্দরবানে ‘কালোপতাকা’ প্রদর্শন

Bandarban-Santi-Chukti-Pic_পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাতিলের দাবিতে বান্দরবানে কালো পতাকা উত্তোলন, মিছিল-সমাবেশ এবং মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে বাঙ্গালী সংগঠনগুলো। সোমবার সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তির ১৬ বর্ষপূর্তিতে বান্দরবানে শান্তি চুক্তিকে ‘কালো চুক্তি’ আখ্যা দিয়ে চুক্তি বাতিলের দাবিতে শহরের বিভিন্নস্থানে অসংখ্য কালো পতাকা উত্তোলন করে বাঙালী ছাত্র পরিষদ, পার্বত্য নাগরিক পরিষদ এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংস্থা (সিএইচটিএসএফ)নামক কয়েকটি বাঙ্গালী সংগঠনগুলো। পরে শান্তি চুক্তি বাতিলের দাবিতে বান্দরবান প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংস্থা। এসময় বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র সংস্থার জেলা সভাপতি বিশ্বজিত চক্রবর্তী, মোহাম্মদ বাবলুসহ কয়েকজন।

অপরদিকে একইদাবীতে বান্দরবান বাজারে সমাবেশ করেছে পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ ও পার্বত্য নাগরিক পরিষদের নেতাকর্মীরা। বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি কামরান ফারুকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য নাগরিক পরিষদের আহবায়ক আতিকুর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফরিদ, মহিলা সম্পাদিকা খুরশিদ আমিন, বাঙালী ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়বসহ বাঙালী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা। পরে মানববন্ধন ও সমাবেশ শেষে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাঙালী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা। সমাবেশে বক্তারা বলেছেন, পার্বত্য শান্তির ফলে পাহাড়ে শান্তি আসেনি। বরং পাহাড়ী-বাঙালী ভেদাভেদ-বৈষম্য আরো বেড়েছে। পাহাড়ের প্রধান সমস্যা ভূমি জটিলতা। ভূমি সমস্যার সমাধান ছাড়া পাহাড়ে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয় মন্তব্য করে তারা বলেন, ভূমি জটিলতা নিরসনে ভূমি কমিশনের সংশোধনী আইন বাতিল এবং একতরফাভাবে করা পার্বত্য শান্তি চুক্তি ‘বাতিল’ করতে হবে। অন্যথায় পাহাড়ে রক্তপাত দিনদিন আরো বাড়বে বলেও মন্তব্য করেন তারা।
এদিকে বিকালে শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের দাবীতে উজানীপাড়াস্থ পুরাতন রাজবাড়ি মাঠে সমাবেশ আয়োজন করেছে জনসংহতি সমিতিসহ (জেএসএস) পাহাড়ী সংগঠনগুলো।21

Micro Web Technology

আরো দেখুন

‘পাহাড়ে উন্নয়ন এবং নিরাপত্তায় করণীয় প্রদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামে বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি খুবই সুন্দর তিনটি জেলায় ব্যাপক …

Leave a Reply