নীড় পাতা » ফিচার » পর্বতকন্যা » মানসম্মত খাবার প্রস্তুত প্রণালি শিখছেন তারা

মানসম্মত খাবার প্রস্তুত প্রণালি শিখছেন তারা

rannaচলতি বছরকে সরকার পর্যটন বছর ঘোষনা করার পর পর্যটন সহায়ক দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে রাঙামাটিতে প্রথমবারের মত বেসরকারি পর্যায়ে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শনিবার শহরের আবাসিক হোটেল প্রিন্স’র ব্যবস্থাপনায় এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

হোটেল প্রিন্সের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত দুইদিন ব্যাপী খাদ্য প্রস্তুত ও পরিবেশন বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন করেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সহযোগিতায় হোটেল প্রিন্স এর আয়োজন করে।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জাকির হোসেন, রাঙামাটি পর্যটন করপোরেশনের ব্যবস্থাপক অলোক বিকাশ চাকমা ও রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোঃ আনোয়ার আল-হক।

লেখক ও সাংবাদকর্মী ইয়াছিন রানা সোহেলের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন হোটেল প্রিন্স’র ব্যবস্থাপক নেসার আহম্মেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন , পর্যটনের ব্যাপারে জেলা পরিষদের তেমন কোনো অভিজ্ঞতা নেই। যেহেতু সরকার চলতি বছরকে পর্যটন বছর ঘোষনা করেছেন, সেহেতু এই খাতের উন্নয়নে একজন কনসালটেন্ট আনা হয়েছে। পর্যটন শিল্পের বিকাশে একটি মহা পরিকল্পনা প্রনয়ন করা হচ্ছে। আশা করি এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা গেলে রাঙামাটির আমুল পরিবর্তন সাধিত হবে।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, রাঙামাটির বিভিন্ন হোটেল-মোটেলের বয়দের পাশাপাশি বাস ও সিএনজি অটোরিক্সা চালকদেরও প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি বলেন, এখানকার পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটলে সরকারের রাজস্ব আয় যেমন বাড়বে। পাশাপাশি এখানকার ব্যবসা বানিজ্যেও ইতিবাচক প্রভাব পড়বে নিঃসন্দেহে।

উদ্বোধনী পর্ব শেষে শহরের ৪০জন মহিলাকে মান সম্মত খাদ্য প্রস্তুতের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করেন রোজনিয়া ডায়েস।
দুইদিনব্যাপি প্রশিক্ষনটি শেষ হবে রোববার।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, অতপর…

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় মুবিনা আক্তার নয়ন (১৬) নামের এক তরুনী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে …

Leave a Reply