নীড় পাতা » ব্রেকিং » লেকার্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়

লেকার্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়

‘তর্কে বিতর্কে বিজ্ঞানের সাথে’-এ শ্লোগানকে রেখে শনিবার রাঙামাটিতে জেলা পর্যায়ে জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা পর্যায়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাঙামাটি সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং রানার্স আপ হয়েছে লেকার্স পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ।

দৈনিক সমকাল পাঠক ফোরাম সুহৃদ সমাবেশ ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের হল রুমে বির্তক অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণতোষ মল্লিক। দিনব্যাপী প্রতিযোগিতায় রাঙামাটি জেলায় ৮টি বিদ্যালয় অংশ গ্রহন করেছে। স্কুলগুলো হলো রাঙামাটি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, রাঙামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, লেকার্স পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়, মোনঘর আবাসিক উচ্চ বিদ্যালয়, শহীদ আবদুল আলী একাডেমী, ভেদভেদী পৌর উচ্চ বিদ্যালয়, মুজাদ্দেদ-ই- আলফেসানী একাডেমী উচ্চ বিদ্যালয়।
দিন ব্যাপী আয়োজনে বিতার্কিকদের প্রাণবন্ত উপস্থাপনা, যুক্তিতর্কের মাধ্যমে পুরো বিতর্ক অনুষ্ঠানকে মাতিয়ে রাখে। এতে জেলা পর্যায়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাঙামাটি সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং রানার্স আপ হয়েছে লেকার্স পাবলিক এন্ড কলেজ। শ্রেষ্ঠ বক্তা হয়েছে রাঙামাটি সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের আখি মনি তানহা।

বিতর্ক প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স হওয়া বিতার্কিকদের মাঝে ট্রফি, সনদপত্র ও পুরষ্কার বিতরণ করেন রাঙামাটি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অরুন কান্তি চাকমা। তিনি ব্যক্তিগতভাবে চ্যাম্পিয়নদের জন্য নগদ ১ হাজার ৫শ টাকা ও রানার্স-আপ হওয়া বিতার্কিকদের ১ হাজার টাকা দেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাঙামাটির প্রবীণ সাংবাদিক সুনীল কান্তি, রাঙামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা, রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রনতোষ মল্লিক, বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী রনজিত দেওয়ান, বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেডের চট্টগ্রাম বিভাগের এরিয়া ম্যানেজার মোঃ সাইফুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান অরুন কান্তি চাকমা বলেন, ছাত্রজীবনে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ কাজ। বিতর্ক প্রতিযোগিতা অন্য যে কোন প্রতিযোগিতা থেকে শ্রেষ্ঠ প্রতিযোগিতা। টেলিভিশনেও এখন সুন্দর সুন্দর বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান দেখানো হয়। রাঙামাটিতে এ ধরণের একটি সুন্দর অনুষ্ঠান আয়োজন করায় আমি দেশের জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক সমকালকে আন্তরিক সাধুবাদ । তিনি বলেন, আজকের সফলতা চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স হওয়া বিতর্ক প্রতিযোগিদের ভবিষ্যতের পাথেয় হবে বলে আমি দৃঢ় বিশ্বাস করি।
রাঙামাটির প্রবীণ সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে বলেন, জেলা পর্যায়ে স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজনের জন্য সমকালকে সাধুবাদ জানাই। আমরা যখন স্কুলে পড়তাম রাঙামাটিতে তখন এ ধরণের সুযোগ ছিল না। বর্তমান প্রজন্মেও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। এই অনুষ্ঠানে এসে দেখলাম বিতার্কিকদের পরষ্পরের মধ্যে যে সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ ও সৌজন্যতা দেখে অমি মুগ্ধ হলাম। যারা আজকের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বিজয়ী হয়েছে তাদের বিভাগীয় ও জাতীয় পর্যায়ে কিভাবে সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়া যায় সে প্রচেষ্টা আমরা চালিয়ে যাবো। এই মহতী উদ্যোগে সমকালের পাশাপাশি যে সকল সংস্থা সহযোগিতা দিয়েছেন তাদেরকেও আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

রাঙামাটি রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা বলেন, পড়ালেখার পাশাপাশি এ ধরণের বিতর্ক অনুষ্ঠানে অংশ নিলে শিক্ষার্থীদের মননশীলতার বিকাশ ঘটাতে সাহায্য করবে এটা নিঃসন্দেহে বলা যায়।

রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক রনতোষ মল্লিক বলেন, সমকাল বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজন করে সেখান থেকে শুধু বিতার্কিকরা নয়, আমরা শিক্ষক-শিক্ষিকারা অনেক কিছুই শিখতে পারি। শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল প্রতিভা বিকাশের ক্ষেত্রে বিতর্ক প্রতিযোগিতার ভুমিকা অনেক বেশি। আগামীতে এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য সমকাল কর্তৃপক্ষকে আহবান জানান তিনি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

প্রেমে ‘টানাপোড়নে’ কিশোরীর আত্মহত্যা

রাঙামাটির লংগদুতে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহত কিশোরী জান্নাতুল (১৫) উপজেলা সদর …

Leave a Reply

%d bloggers like this: