নীড় পাতা » বান্দরবান » লামায় ৭ মাসে ৪ বন্য হাতির মৃত্যু

স্বাভাবিক মৃত্যু নাকি হত্যা?

লামায় ৭ মাসে ৪ বন্য হাতির মৃত্যু

বান্দরবানের লামা উপজেলায় আরও একটি বন্য হাতির মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি খালকুইল্যা পাড়ার ঝিরিতে হাতিটির মৃত দেহটি পাওয়া যায়। মৃত পুরুষ হাতিটির বয়স আনুমানিক ১২ বছর হবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে হাতিটির মৃত্যু স্বাভাবিক নাকি হত্যা -এ নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। এ নিয়ে গত সাত মাসে উপজেলায় ৪টি হাতির মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, শনিবার সকালে ঝিরিতে একটি মৃত বন্য হাতি দেখে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আবদুর রহিম ও বন বিভাগ কর্তৃপক্ষকে খবর দেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে ডুলহাজারা সাপারি পার্কের ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ও লামা বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা নূরে আলম হাফিজসহ একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে হাতিটির ময়নাতদন্তের জন্য নমুনা সংগ্রহ করেন। পারাপারের সময় কাটা তারের বেড়া কিংবা পাহাড় থেকে পড়ে আহত হয়ে হাতিটির মৃত্যু হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বলে জানান লামা সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা নূরে আলম হাফিজ।

তবে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আবদুর রহিম বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে বন্য হাতিটির মৃত্যু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ৬ নভেম্বর একই ইউনিয়নের ইয়াংছা সলিমুল হক চৌধুরীর বাগানে একটি, ১৯ নভেম্বর কুমারী চাককাটাররিতে একটি বাচ্চা বন্য হাতি ও ৩০ নভেম্বর ইসকাটাকার ঝিরিতে একটি বন্য হাতির মৃত্যু হয়। এসব হাতি হত্যার অভিযোগে পৃথক মামলা করেন বন বিভাগ।

বন্যহাতির মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এসএম কায়চার বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য হাতিটির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলে নিশ্চিত জানা যাবে কি কারণে হাতিটি মারা গেছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply