নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » লামায় প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে ২ জন আটক

লামায় প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে ২ জন আটক

বান্দরবানের লামায় সরস্বতী পূজার প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে দুজন’কে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ইউপি সদস্য রাখাল চন্দ্রের নেতৃত্বে স্থানীয় লোকজনরা জেলার ফাইতং ইউনিয়নের মনিন্দ পাড়া থেকে এদের দুজনকে আটকের পর পুলিশে সোর্পদ করেছে। আটককৃতরা হলেন-তাবলিক জামায়াতের সদস্য নীলফামারি জেলার বাসিন্দা আবদুর রহমান এবং কক্সবাজার জেলার পেকুয়ার বাসিন্দার মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার ভোরে ফজরের নামাজের সময় মনিন্দ্র পাড়া হরি মন্দিরে সরস্বতী পূজার মাইক চালানোর কারণে সকালে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে তাবলিগ জামায়াতের লোকেরা নামাজের সময় মাইক বন্ধ রাখতে বলে। এ নিয়ে মন্দির কমিটির নেতাসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকের সঙ্গে স্থানীয় মুসুল্লিদের কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন,এই সময় মন্দিরের দুটি প্রতীমা ভাংচুর করা হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রাখাল চন্দ্র জানিয়েছেন, সকালে সরস্বতী পূজা মন্ডপে ১০/১২ জন যুবক এসে তারা নিজেদের তাবলীগ জামায়াত পরিচয় দিয়ে পূজা ও মাইক বাজানো বন্ধ রাখতে বলেন। পরে তারা হুমকি দিলে কথাকাটির জের ধরে মন্দিরের দুটি প্রতিমা ভাঙচুর করে তারা।

ফাইতং ইউনিয়ন পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই তারেক রহমান ও লামা থানার পুলিশ পরিদর্শক এসআই মোহাম্মদ হেলাল জানান, প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে তাবলিগ জামায়াতের দুজনকে ধরে পুলিশে দিয়েছেন ইউপি সদস্য রাখাল চন্দ্র’সহ হিন্দু ধর্মালম্বীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মন্দিরে ১টি প্রতিমার উপরের একটি অংশ ভাঙা পাওয়া গেছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে করোনায় আরও এক নারীর মৃত্যু

রাঙামাটি শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে শহরের চম্পকনগর আইসোলেশন …

Leave a Reply