নীড় পাতা » পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়া » লংগদু আওয়ামী লীগের ‘টেলিভিশন-ডিশ রাজনীতি’

লংগদু আওয়ামী লীগের ‘টেলিভিশন-ডিশ রাজনীতি’

AL-Languduবিএনপি অধ্যুষিত লংগদু উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামগুলোতে সরকার বিরোধী অপপ্রচার রোধে বিকল্প উপায় বেছে নিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। শুধু ‘সরকারি বিরোধী’ হিসেবে পরিচিত চ্যানেল নয়,নেতাকর্মী এবং সাধারন মানুষ যেনো সবচ্যানেল দেখতে পারে সেইজন্য নিজেদের সবগুলো ইউনিট অফিসে টেলিভিশন বিতরন শুরু করেছে তারা।

রাঙামাটির লংগদু উপজেলা অফিস,ছয়টি ইউনিয়নসহ সবগুলো ইউনিট আওয়ামী লীগের অফিসে বুধবার একটি করে টেলিভিশন,একটি ডিশ এবং ১০ টি করে চেয়ার বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নিজেদের টাকায় এই টেলিভিশন বিতরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নেতারা। বুধবার দুপুরে উপজেলা সদরে অনানুষ্ঠানিকভাবে এইসব উপকরণ বিতরণ করা হয়।

আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন, ইউনিট অফিসগুলোর জন্য ১৬ টি টেলিভিশন, ১০ টি ২১ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন ও ১০ টি করে চেয়ার বিতরণ করা হয়। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সবগুলো ইউনিট অফিসেই এই টেলিভিশন ও ডিশ বিতরণ করা হবে বলেও জানান তারা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জানে আলম বলেন, আমরা নিজেদের টাকায় এসব সামগ্রী কিনে অফিসগুলো সেটআপ করছি। নেতাকর্মীরা দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিলো,তাই আমরা সিনিয়র নেতারা এই টেলিভিশন ক্রয় করি এবং অফিসগুলোতে বিলি করেছি। তবে সবগুলো অফিসে বিলি করা সম্ভব হয়নি। ধীরে ধীরে আমরা চেষ্টা করছি। তিনি আরো  জানিয়েছেন,কিছুদিন আগে এই উপজেলায় বিএনপিও স্থানীয়ভাবে বেশকিছু টেলিভিশন বিতরণ করেছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল দাশ বাবুও জানিয়েছেন,উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দলীয় অফিসগুলোকে চাঙ্গা করা এবং নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করার জন্যই আমরা এই উদ্যোগ নিয়েছি। তিনি আরো জানান,গ্রামে কিছু মৌলবাদী চ্যানেলের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ বিরোধী অপপ্রচার চালানো হয়,তাই আমরা আমাদের অফিসগুলোতেও টিভি বিতরণ করছি সাধারন মানুষ যেনো মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের খবরও পায় সেইকারণে। এর মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে ‘ডিজিটাল ও মিথ্যা অপপ্রচার’ প্রতিরোধ করা যাবে বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের এই তরুন নেতা।

প্রসঙ্গত, পুনবার্সিত বাঙালী অধ্যৃষিত লংগদু উপজেলা দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। কিন্তু সাম্প্রতিক কয়েক বছরে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক অবস্থান ও উন্নয়নমূল কাজের কারণ বিপুল সংখ্যক পুনর্বাসিত বাঙালী আওয়ামী লীগে রাজনীতি শুরু করে। এমনকি উপজেলার দুই ভাইস চেয়ারম্যান,দুইজন ইউপি চেয়াম্যান নির্বাচিত হয় আওয়ামী লীগ থেকে। ধীরে ধীরে এই উপজেলায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক ভিতকে আরো শক্তিশালী করতে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারও সবচে বেশি সফল করেছেন এই উপজেলায়। আগামী নির্বাচনেও এই উপজেলার ভোট তার জয়পরাজয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলেও মনে করেন পর্যবেক্ষকরা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

ঘর পেয়ে খুশি কাপ্তাইয়ের গৃহহীনরা

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা ইউনিয়নের মুরালি পাড়া মারমা পাড়া গ্রাম। উপজেলা সদর হতে বড়ইছড়ি-ঘাগড়া সড়কে …

Leave a Reply