নীড় পাতা » করোনাভাইরাস আপডেট » লংগদুতে স্বেচ্ছায় কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে ছাত্রলীগ

লংগদুতে স্বেচ্ছায় কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে ছাত্রলীগ

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের কারণে শ্রমিক সংকট দেখা দেওয়ায় বিনা পারিশ্রমিকে রাঙামাটির লংগদুতে কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে উপজেলা ছাত্রলীগ। শুক্রবার সকালে উপজেলা ছাত্রলীগের ২০ থেকে ২৫ সদস্যদের একটি দল আটারকছড়া ইউনিয়নের ডানে আটারকছড়া গ্রামের কৃষক আলী আকবরের ধান কেটে দেয়।

লংগদু উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আল মামুনের নেতৃত্বে ধান কাটা দলে আরও ছিলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আল মাহমুদ, লংগদু মডেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম (অপু), আটারকছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মো. মুস্তুজা, আটারকছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাঞ্চন বড়ুয়া, ছাত্রলীগ নেতা মো. তানবির, রবিউল ইসলাম, নবী হোসেন, মো. সাকিব, মো. রবিন, হৃদয় শীল, মো. রাজ্জাকসহ উপজেলা, কলেজ ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

কৃষক আলী আকবর জানিয়েছেন, “জমিতে ধান পেকে গেছে, কিন্তু শ্রমিক না পাওয়া ধান কেটে ঘরে নিতে পারছিলাম না। বিষয়টি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কয়েকজনকে বিষয়টি জানালে তারা শুক্রবার সকাল থেকে উপজেলা ছাত্রলীগের ভাইয়েরা মিলে আমার প্রায় ২ একর জমির ধান কেটে দিতে সাহায্য করেছে। আমি তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞ।”

লংগদু মডেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম (অপু) বলেন, “মহামারির সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকলকে বাসায় থাকার নির্দেশনা দেয় সরকার। এদিকে ধান পেঁকে যাচ্ছে, অন্যদিকে শ্রমিক সংকট দেখা দেওয়ায় ধান কাটতে পারছে না কৃষক। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা মোতাবেক বিনা পারিশ্রমিকে কৃষকের ধান কেটে দিয়ে কৃষকের পাশে থাকার চেষ্টা করছি।”

উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আল মাহমুদ বলেন, “করোনার কারণে উপজেলায় ধান কাটার শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। তাই উপজেলা ছাত্রলীগের টিম থেকে হতদরিদ্র ও কৃষষদের বিনা পারিশ্রমিকে ধান কেটে দিচ্ছি। যতদিন ধান কাটার মৌসুম থাকবে কৃষদের চাহিদা অনুযায়ী আমরা আমাদের সেবা অব্যাহত রাখবো।”

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা বলেন, “দেশের যে কোন দুর্যোগে ছাত্রলীগ সাধারণ মানুষের পাশে ছিল। এখনো করোনা ভাইারাসের কারণে শ্রমিক সংকটে কৃষক ধান কাটতে পারছে না ঠিক তখন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও রাঙামাটির সাংসদ দীপংকর তালুকদারের নিদের্শনায় প্রতিটি ইউনিট মাঠে রয়েছে এবং কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়ে আসছে। যতদিন এই মহামারি থাতবে ততদিন ছাত্রলীগ মাঠে থাকবে।”

Micro Web Technology

আরো দেখুন

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর বাইশারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফিরল ফুটবল

পার্বত্য বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার রাবার শিল্প নগরী হিসেবে পরিচিত বাইশারীতে দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরেছে ফুটবল। …

Leave a Reply