নীড় পাতা » ব্রেকিং » ‘রাঙামাটি বিএনপি আরো বেশি সুসংগঠিত হয়েছে’

‘রাঙামাটি বিএনপি আরো বেশি সুসংগঠিত হয়েছে’

jjjjjjjjjjjjjjjjjjjjjjjj‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের যুব সমাজের কথা চিন্তা করে, যুব সমাজকে এক করার লক্ষ্যে জাতীয়তাবাদী যুবদল গঠন করেন। এই দলটি আবদুল কাসেমের হাত ধরে শুরু হয়ে বর্তমানে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এক বড় সংগঠনে রূপলাভ করেছে।’
রাঙামাটি জেলা যুবদলের উদ্যোগে সংগঠনের ৩৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও জেলা বিএনপির নবনির্বাচিত নেতাদের সংবর্ধায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ শাহ আলম এইসব কথা বলেন।
তিনি আরা বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা জানেন,কারা দলের প্রকৃত নেতা,তাই তারা রাঙামাটি জেলা বিএনপির সম্মেলনে আমাদেরকে নিজেদের রায় দিয়ে নির্বাচিত করেছেন, তাইতো এবার জেলা সহ সকল উপজেলা ও থানা,পৌরসভায় যারা নেতৃত্বে এসেছেন, সবাই দলের পরীক্ষিত ও ত্যাগি নেতা। যারা দলের সংকটকালিন বিশেষ সময়ে এবং দেশের ক্রান্তিকালে আওয়ামীলীগদের বিভিন্ন হামলা,মামলা সহ হয়রানি শিকার হওয়ার পরেও মাঠে ছিলো এবং দলের জন্য কাজ করেছেন তারাই আজ নেতৃত্বে এসেছে।
মোঃ শাহ আলম বলেন, রাঙামাটি বিএনপির ১১টি অংগসংগঠন আছে সবাইকে এক হয়ে রাজপথে নামতে হবে, এই সরকারকে পতন ঘটাতে হবে,দেশের স্বার্থে,গনতন্ত্রের স্বার্থে।
‘জনগন এই সরকারকে আর চায়না’ দাবি করে জেলা বিএনপির শীর্ষ এই নেতা বলেন, এই সরকার স্বৈরাচারি সরকার, তারা দেশে বিভিন্ন ভাবে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করছে, আর তার দায় বিএনপির উপর চাপিয়ে দিচ্ছে। তাই এই সরকারকে পতন ঘটাতে খালেদা জিয়াকে আবারো দেশের উন্নয়নের জন্য প্রধান মন্ত্রী নির্বাচিত করতে হবে।
রাঙামাটির আগামী পৌরসভা নিবাচনে জেলা বিএনপি যাকে সমর্থন করবে তার পক্ষে সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়ে তিনি বলে, বিএনপিতে কোন প্রকার দলাদলি হবেনা, দল যাকে যোগ্য মনে করবে, তাকে মনোনয় দিবে এবং সেই নিবার্চন করবে। তার পক্ষে সবাইকে কাজ করতে হবে বলেও নির্দেশ দেন তিনি ।
‘রাঙামাটি বিএনপি দেউলিয়া হয়নি,বরং আরো বেশি সুসংগঠিত হয়েছে’ বলে মন্তব্য করে তিনি আরো বলেন, রাঙামাটি বিএনপি আগের মত আছে, পারলে আরো সংগঠিত হয়েছে, শুধু সংগঠিত হলে হবেনা, তাদেরকে নিজ নিজ জায়গা থেকে আরো কঠোর আন্দোলন করতে হবে।
‘যারা পাহাড়ি মুক্ত বিএনপি চাই’ বলে মিছিল করেছে, তাদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, বিএনপি কোন জাতিকে বুঝেনা, বিএনপি সবার, এটি বাংলাদেশের সকল জনগনের দল। যারা এই ধরনের কথা বলে তাদের সতর্ক করে দেন তিনি।
জেলা যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল এর সভাপতিত্বে এবং জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইলিয়াস এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক দীপেন তালুকদার দীপু, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সাইফুল ইসলাম পনির, সদর থানা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট মামুনুর রশীদ মামুন।
অনুষ্ঠানের শুরুতে নব নিবার্চিত বিএনপি জেলা কমিটিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানায় যুবদলের বিভিন্ন থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট শাখা ।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পৌর বিএনপির সভাপতি শফিউল আজম শফি, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল বাসেত অপু, রাঙামাটি জেলা জাসাস’র সদস্য সচিব আবুল হোসেন বালি, জেলা ওলামাদলের সভাপতি মাওলানা আবুল কাসেম, জেলা তাঁতীদলের সভাপতি আবদুল গনি মজুমদার, জেলা ছাত্র দলের সভাপতি আবু সাদাত মোঃ সায়েম।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল বলেন, আওয়ামীলীগ সন্ত্রাস কীরে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে দেশে আসতে বাধা দিচ্ছে, যুব সমাজের প্রতীক তারেক রহমানকেও দেশে আসতে দিচ্ছে না। এই বাধা পেরিয়ে তারা আসবে এবং দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে দাবি করে তিনি আরো বলেন, বিএনপিকে দরকার এটা বাংলাদেশের মানুষ বুঝে গেছে।
অনুষ্ঠানে যুবদলের ৩৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ৩৭ পাউন্ড ওজনের একটি কেক কাটা হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply