নীড় পাতা » খেলার মাঠ » রাজস্থলীকে গোলবন্যায় ভাসালো কাপ্তাই

রাজস্থলীকে গোলবন্যায় ভাসালো কাপ্তাই

রাঙামাটির চিং হ্লা মং চৌধুরী মারি স্টেডিয়ামে  শনিবার বিকেলে প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেই প্রথম রাউন্ডে শক্তিশালি লংগদুকে পরাজিত করে আসা রাজস্থলী উপজেলাকে ৭-০ গোলে পরাজিত করেছে ফেবারিট কাপ্তাই।

 প্রথম রাউন্ডে বাই পেয়ে সরাসরি দ্বিতীয় রাউন্ডে চলে আসা কাপ্তাই আজ প্রথমবারের মতো মাঠে নামে। খেলার শুরু থেকেই একতরফা খেলে মাঠের নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয় কাপ্তাই।  এরপরই যেনো তারা শুরু করে গোল উৎসব। খেলার প্রথমার্ধের ২২মিনিটে কাপ্তাই উপজেলা দলের ১০নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় সেন্টু চন্দ্র সেন গোল করে দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে নেয়। এরপর ৩১ ও ৩৭ মিনিটে দলের ৮নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় জোবাইর খান জনি পরপর দুই গোল করে দলকে ৩-০ গোলে এগিয়ে রাখে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই বেআইনীভাবে বাধা দেয়ার অপরাধে রেফারি রাজস্থলী উপজেলা দলের ২নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় বাহাদুরকে লাল কার্ড দেখালে ১০ জনের দলে পরিনত হয় তারা। এরপরও তাদের গোছানো খেলায় তারা তিনটি চমৎকার সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে হিসেবটা হয়তো অন্যরকম হতে পারতো। কিন্তু দলের স্ট্রাইকারদের লক্ষ্যভ্রষ্ট শট জালে বল জড়াতে পারেনি। কিন্তু কাপ্তাই উপজেলা দলের খেলোয়াড়রা একটি সুযোগ ছাড়া আর কোনো সুযোগ নষ্ট করেনি। দ্বিতীয়ার্ধের ১২ মিনিটে কাপ্তাই উপজেলা দলের সেন্টু চন্দ্র সেন নিজের দ্বিতীয় এবং দলের পক্ষে চতুর্থ গোল করেন। এরপর ১৮ ও ২১ মিনিটে দলের স্ট্রাইকার জোবাইর খান জনি চমৎকার শটে গোল করে নিজের হ্যাট্রিক পূর্ণ করে। সর্বশেষ ৩৩ মিনিটে ৭নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় জব্বার খান গোল করলে ৭-০ গোলে জয় পায় কাপ্তাই উপজেলা দল।

মজার ব্যাপার হলো দ্বিতীয় রাউন্ডের এই খেলায় বেশিরভাগ অংশ জুড়েই উভয় দলই খেলেছে ১০ জন খেলোয়াড় নিয়ে ! প্রথমার্ধেই লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ছাড়েন কাপ্তাই উপজেলা দলের স্বপন দাশ আর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই লাল কার্ড পেয়ে দশজনের দলে পরিণত হয় রাজস্থলীও ! রাজস্থলী দলের বাহাদুর লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন।

স্থানীয় ফুটবলে কাপ্তাইকে বরাবরই ফেবারিট হিসেবে সমিহ করা হয়ে থাকে। এবারের প্রতিযোগিতাতেও তারা শিরোপা’র অন্যতম দাবিদার বলে মনে করছেন ফুটবল সংশ্লিষ্টরা। সাবেক জাতীয় ফুটবলার ছোট কামাল,টিপু  আর বিপ্লব মারমা’দের  উত্তরসূরিরা আজ কেমন খেলে তা দেখার জন্য মাঠে বৃষ্টিভেজা বিকেলেও বিপুল সংখ্যক দর্শক সমাগম হয়।

খেলা পরিচালনা করেন মোঃ শফিউল নেজাম। রবিবার একই মাঠে  কাউখালী উপজেলা দলের বিপক্ষে মাঠে নামবে নানিয়ারচর  উপজেলা দল।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

খোকন-রঞ্জনের স্মৃতিতে রাত্রিকালিন ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শহরে

রাঙামাটির একসময়কার সাড়াজাগানো ক্রিকেটার ও ক্রিকেট সংগঠক খোকন ও রঞ্জন স্মরণে তাদের হাতে গড়া ক্রিকেটারদের  …

Leave a Reply