নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটি কলেজে পিসিপি-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ

রাঙামাটি কলেজে পিসিপি-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ

রাঙামাটি সরকারি কলেজে ছাত্রলীগ ও পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। একই সময়ে বাঙালী মালিকানাধিন ৭ টি দোকান ভাংচুর ও দোকানীদের মারধর করা হয়। এসময় একজন ছাত্রলীগ কর্মী ও দুইজন সাধারন ছাত্র আহত হয় ও দুইটি মোটর সাইকেল পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।

সংঘর্ষে চলাকালে পিসিপি কর্মীদের হামলায় ছাত্রলীগ কর্মী অর্ণব ত্রিপুরা,কলেজ গেইটের আকতার স্টোরের আকতার,শাহ আলম স্টোরের শাহ আলম, মেহমান স্টোরের আলম,নিউ শাহী ভাতঘরের কর্মচারি মোমিনুল,শুভেচ্ছা স্টোরের রাসেল,পাহাড়ীকা কাউন্টারের হাসান,ইউসুফ নামের এক পান দোকানি এবং এনথন চাকমা ও ইকবাল নামে দুই শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

এসময় কলেজগেইট এলাকায় অন্ততঃ দুইটি মোটর সাইকেল পুড়িয়ে দেয়া হয়।

রাঙামাটি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আহম্মদ ইমতিয়াজ রিয়াদ জানিয়েছেন, আমাদের মিছিল শেষ করে অর্ণব ত্রিপুরা যখন ক্যান্টিনে যাচ্ছিলো,তখন পিসিপি কর্মীরা তার উপর হামলা করে এবং তাকে মারধর করে,আমরা এর প্রতিবাদ করলে তারা আমাদের উপর হামলা করে,ক্যাম্পাসের বাইরের দোকানে অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুর করে আমাদের ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেয়।

আহত শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী অর্ণব ত্রিপুরা অভিযোগ করেছেন,পিসিপি কর্মীরা তাকে বিনা উস্কানিতেই মারধর করেছে।

পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি বাচ্চু চাকমা জানিয়েছেন, আমাদের কিছু কর্মী কলেজ ক্যাম্পাসে দাঁড়িয়ে ছিলো,এসময় ছাত্রলীগ কর্মীরা তাদের কর্মীদের উপর বিনা উস্কানিতে ইট নিক্ষেপ করলে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তাৎক্ষনিকভাবে এর চেয়ে বেশি কিছু জানাতে পারেননি তিনি।
রাঙামাটি জেলা পিসিপির সাধারন সম্পাদক রিন্টু চাকমা জানিয়েছেন, আমাদের কর্মীরা এক পাহাড়ী শিক্ষার্থীর সাথে খেলা নিয়ে কথা বলছিলো,কিন্তু ছাত্রলীগ ভেবেছে আমরা তাকে মারধর করছি,তাই তারা হৈ হুল্লোড় করে আমাদের উপর হামলা করেছে।

দোকান ভাংচুর কিংবা দোকানীদের মারধরের ঘটনার সাথে পিসিপি জড়িত নয় বলে দাবি করেছেন তিনি।

রাঙামাটির পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এসেছে বলে জানিয়ে বলেছেন,পুলিশ ও সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে আছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার প্রতিবাদ রাঙামাটিতে

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার নামে ‘উগ্রমৌলবাদ ও ধর্মান্ধগোষ্ঠীর জনমনে বিভ্রান্তির …

৮ comments

  1. কলেজ থেকে ছাত্রলীগকে বের করে দেওয়ার জন্য সাংগঠনিক দূর্বলতার প্রকাশ,বিরোধী দলে থাকার সময়ও এমনটা হতে দেখা যায়নি বিগত সময়।
    কলেজ শাখার নেতৃবৃন্দের ও জেলা ছাত্রলীগের উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনে সাবেক ছাত্রলীগের নেতাদের পরামর্শ ও সহযোগিতা চাইতে পারে

  2. যদি সত্য হয় যে, ছাত্রলীগ কে বের করে দেওয়া হয়েছে তবে তার জন্য ছাত্রলীগকে ভাবতে হবে কোথায় দুর্বলতা। প্রশাসনিক ভাবে বিষয়টি দেখা উচিৎ।

  3. সব বিরোধী দলের চক্রান্ত

  4. ছাত্রলীগ কলেজে কোন কালে পিসিপির সাথে পেরেছে বলে আমার মনে হয় না। আমি যখন ১৯৯৮ সালে কলেজে ছিলাম তখনও একবার মারামারিতে ে ১(এক) সপ্তাহ পযন্ত চাত্রলীগ কলেজে আসতে পারে নি

Leave a Reply

%d bloggers like this: