নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » রাঙামাটির সড়ক ও নৌপথ ধর্মঘট স্থগিত

রাঙামাটির সড়ক ও নৌপথ ধর্মঘট স্থগিত

Rangamati-Pic--043রাঙামাটি জেলায় বুধবার সকাল থেকে শুরু হওয়া দুইদিনের সড়ক ও নৌপথে ধর্মঘট স্থগিত করেছে রাঙামাটি সড়ক ও নৌ পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। গত ২৫ মার্চ রাঙামাটি শহরের রিজার্ভবাজার এলাকা থেকে অপহৃত দুই লঞ্চ শ্রমিককে উদ্ধারের প্রশাসনিক প্রচেষ্টা ‘ব্যর্থ’ হওয়ায় বুধ ও বৃহস্পতিবার দুইদিন রাঙামাটিতে ৪৮ ঘন্টার সড়ক ও নৌপথ ধর্মঘট কর্মসূচী পালন শুরু করে সংগঠনটি।

স্থানীয় সংসদ সদস্য উষাতন তালুকদারের সাথে বৈঠক শেষে অপহৃতদের উদ্ধারে তার আশ্বাস এবং আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সংকটের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটি বাস মালিক সমিতির সভাপতি মঈনুদ্দিন সেলিম। তিনি বিকেল সাড়ে ৪ টায় এই তথ্য জানিয়ে বলেন,এখন থেকেই ( বুধবার,বিকেলে সাড়ে চারটা) ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে।

বুধবার সকাল থেকে শুরু হওয়া সড়ক ও নৌপথে সবগুলো পরিবহন সংগঠনের ডাকা এই ধর্মঘটের কারণে কার্যত অচল হয়ে পড়ে পার্বত্য শহর রাঙামাটি। সকাল থেকেই শহরের সবগুলো সড়কে যান চলাচল বন্ধ আছে,উপজেলাগুলোর উদ্দেশ্যেও কোন যাত্রীবাহি লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। বন্ধ ছিলো শহরের আভ্যন্তরীণ চলাচলের একমাত্র বাহন অটোরিক্সাও। ব্যক্তিগত মোটর সাইকেল আর আইনশৃংখলা বাহিনীর গাড়ী ছাড়া সব যান চলাচল বন্ধ ছিলো। ধর্মঘট প্রত্যাহারের পর আবার স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে শহরের জনজীবন।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংগঠনটির পক্ষ থেকে আহ্বায়ক হাজী মনসুর আহম্মেদ সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুই লঞ্চ শ্রমিককে মুক্তি দেয়া না হলে আরো কঠোর কর্মসূচী ও লাগাতার ধর্মঘট কর্মসূচী দেয়া হবে।
তবে অপহৃতদের উদ্ধারে সেনাবাহিনী,বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তফা কামাল।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার ২৫ মার্চ রাত ৮ টায় শহরের রিজার্ভবাজার এলাকা থেকে লঞ্চ মালিক সমিতির নেতা মঈনুদ্দিন সেলিম এর মালিকানাধীন এমএল শফি লঞ্চের দুই কর্মচারি কাশেম ও জসীমকে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে বলে দাবি করে আসছে রাঙামাটির বিভিন্ন সড়কে চলাচলকারি পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের প্রভাবশালী এই সংগঠনটি ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জনপ্রিয় হচ্ছে ‘তৈলাফাং’ ঝর্ণা

করোনার প্রভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল খাগড়াছড়ির পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র। তবে টানা বন্ধের পর এখন খুলেছে …

Leave a Reply