নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটির বিহারগুলোতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

রাঙামাটির বিহারগুলোতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

রাঙামাটিতে ৭৩ বৌদ্ধ বিহারসহ অসহায় রোগীদের চিকিৎসা সহায়তার জন্য অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এসব অনুদান দেয়া হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ এবং বৌদ্ধধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট তহবিল হতে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় শহরের মৈত্রী বিহার দেশনালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব অনুদানের চেক বিতরণ করে, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের রাঙামাটি পার্বত্য জেলার ট্রাস্টি অফিস। অনুষ্ঠানে মোট ১৯ লাখ ১৮ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট রাঙামাটি পার্বত্য জেলার ট্রাস্টি দীপক বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম হেডম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বৌদ্ধ এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রগতি খীসা ও রাঙামাটি সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান দুর্গেশ্বর চাকমা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্যাগোডাভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের সুপারভাইজার শাক্যরাজ চাকমা। অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ও সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় মঙ্গলাচরণ পরিচালনা করেন, মৈত্রী বিহারের আবাসিক ভিক্ষু শ্রীমৎ শীলানন্দ স্থবির।

অনুষ্ঠানে মেরামত ও সসংস্কারের জন্য সদরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার ৭৩টি বৌদ্ধ বিহারকে ১৭ লাখ ৫৯ হাজার, তিনটি শ্মশান সংস্কারের জন্য ৮০ হাজার এবং ছয়জন গরিব ও অসহায় রোগীকে ৮০ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে।

বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের রাঙামাটি পার্বত্য জেলার ট্রাস্টি দীপক বিকাশ চাকমা জানান, গত বৈশাখী পূর্ণিমা উপলক্ষে তার ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল হতে জেলার ৬৩ বৌদ্ধ বিহার সংস্কার ও মেরামতের জন্য ১২ লাখ টাকার অনুদান দিয়েছেন। একই সঙ্গে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব তহবিল হতে ১০টি বৌদ্ধ বিহার সংস্কার ও মেরামতের জন্য ৫ লাখ টাকা অনুদান দেয়া হয়েছে। এছাড়া এ কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব তহবিল হতে তিনটি শ্মশান সংস্কারে ৮০ হাজার টাকা এবং ৬ জন অসহায় দূরারোগ্য রোগীর চিকিৎসা সহায়তায় ৮০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসাম্প্রদায়িক ও দূরদর্শী চেতনায় বর্তমানে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের ধর্ম, বর্ণ, নির্বিশেষে সবার উন্নয়নে সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত হয়েছে। ফলে পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে ব্যাপক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করছে বর্তমান সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের মানুষের প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক ও সহানুভূতিশীল। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বর্তমানে পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তির বাতাবরণ বইছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম আগের মতো আর পিছিয়ে নেই। সবক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রাম। এটা সম্পূর্ণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, অতপর…

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় মুবিনা আক্তার নয়ন (১৬) নামের এক তরুনী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে …

Leave a Reply