নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটিতে ৩দিন ব্যাপী নাট্যোৎসব শুরু

রাঙামাটিতে ৩দিন ব্যাপী নাট্যোৎসব শুরু

পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত নৃ-গোষ্ঠীদের ভাষা, সংস্কৃতি ও জীবনধারাকে তুলে ধরতে পার্বত্য জেলা রাঙামাটি শুরু হয়েছে তিনদিন ব্যাপী নাট্য উৎসব। শনিবার সন্ধ্যায় রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের আয়োজনে সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট অডিটরিয়ামে এই নাট্য উৎসব শুরু হয়েছে।

প্রথম ও উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে নাট্য উৎসবের উদ্বোধন করেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। এ সময় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) রুনেল চাকমা, ইনস্টিটিউটের প্রাক্তন পরিচালক সুগত চাকমা, রাঙামাটি সুর নিকেতনের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান সঙ্গীত শিক্ষক মনোজ বাহাদুর গুর্খাসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

তিনদিনব্যাপী এই নাট্য উৎসবে শনিবার রাঙামাটি জুম ফুল থিয়েটারের পরিবেশনায় চাকমা নাটক ‘আদেই ধন’,  রবিবার খাগড়াছড়ি য়ামুক নাট্যগোষ্ঠীর পরিবেশনায় ত্রিপুরা নাটক ‘কিয়ক্খা’ ও  সোমবার শেষদিনে রাঙামাটি ফু-কালাং সাংস্কৃতিক একাডেমির পরিবেশনায় তঞ্চঙ্গ্যা নাটক ‘গিঙিলি মঞ্চস্থ’ করা হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, ‘একটি জাতির প্রধান পরিচয় হচ্ছে তার ভাষা ও সংস্কৃতি। বাংলা ভাষার পাশাপাশি আমাদের পার্বত্যাঞ্চলে রয়েছে বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস। রয়েছে তাদের নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার নৃ-গোষ্ঠীদের উন্নয়নে সর্বদা কাজ যাচ্ছে। পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের নিজস্ব ভাষায় পড়ালেখা করতে পারে সে লক্ষে নৃ-গোষ্ঠীদের ভাষা অক্ষরে বই প্রদান করছে। শিক্ষাথীদের সঠিকভাবে পড়ানোর জন্য জেলা পরিষদ হতে শিক্ষকদের নৃ-গোষ্ঠীদের ভাষা অক্ষরের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। যা অব্যহৃত থাকবে।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে করোনায় আরও এক নারীর মৃত্যু

রাঙামাটি শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে শহরের চম্পকনগর আইসোলেশন …

Leave a Reply