নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটিতে হাম-রুবেলা টিকাদান চলবে ১৮মার্চ-১১এপ্রিল

রাঙামাটিতে হাম-রুবেলা টিকাদান চলবে ১৮মার্চ-১১এপ্রিল

রাঙামাটিতে হাম রুবেলা টিকাদান আগামী ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয়ে ১১এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। রোববার বিকাল তিনটায় রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস কনফারেন্সে এই তথ্য জানান রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা।

তিনি জানান, হাম রুবেলা রোগ সাধারণত শিশুদের হয়ে থাকে। এই রোগে আক্রান্তের শতকরা ২৫-৩০ভাগ রোগী মারা যায়। ২০০৫ সালের পর থেকে দেশে এই রোগের প্রকোপ কমলেও ২০১৮-১৯সালে তা আবার বেড়েছে, তাই এই টিকা প্রদান খুবই জরুরি। ৯ মাস থেকে ১০বছর বয়সী শিশুদের এই টিকা দেওয়া হবে। যেসব শিশু ইতি মধ্যে এই টিকা নিয়েছেন তাদেরও টিকা নিতে হবে, কারণ এই টিকা নেয়া শিশুদের শতকরা ১৩ভাগের টিকা নেয়ার পরও হাম হতে পারে। তাই যারা নিয়েছেন তাদেরও আবার নিতে হবে, যাতে সে ১৩ভাগেরও হাম না হয়।

সিভির সার্জন জানান, ১৮মার্চ-১১এপ্রিল পর্যন্ত প্রথম সপ্তাহে প্রতিটি বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণী থেকে ৪র্থ শ্রেণী পর্যন্ত শিশুদের টিকা দেওয়া হবে। পরে এলাকাভিত্তিক টিকা দান কেন্দ্রগুলোতে এই টিকা দেওয়া হবে। এই টিকা দেওয়ার পর শিশুদের হয়তো টিকার স্থান ফুলে যেতে পারে। এমনই কোন প্রভাব দেখা দিলে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।যেসব শিশু বিদ্যালয়ে টিকা নিতে পারবেন না, তারা সংশিষ্ট এলাকায় যেদিন টিকা দিবে সেখানে টিকা নিতে পারবেন। আমরা চাই এই টিকা থেকে যেন একজন শিশুও বাদ না যায়। যার মাধ্যমে আমরা হাম রুবেলাকে জয় করতে চাই। এবার জেলায় ১লক্ষ ৩২হাজার ৮৫জন শিশুকে টিকা দানের লক্ষ্যমাত্রা নিধারণ করা হয়েছে। যার মধ্যে বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা গুলোতে ৭০হাজার ৪শত ১০জনকে শিশুকে দেওয়া হবে হাম রুবেলা টিকা। জেলার মোট ১হাজার ১শত ১৫টি কেন্দ্রে এই টিকা প্রদান করা হবে। প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্রে অভিজ্ঞ টিকাদানকর্মী থাকবেন।

প্রেস কনফারেন্সে আরো বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মোস্তফা কামাল।

হাম রুবেলা রোগের কারণ এবং প্রতিরোধ ও বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে সাংবাদিকদের স্লাইট শো পরিবেশন করান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সার্ভিলেন্স এন্ড ইমোনাইজেশন অফিসার ডা. জয়ধন তঞ্চঙ্গ্যা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

নারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অবদান রাখবে কিশোরী ক্লাব

রাঙামাটির বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) প্রোগ্রেসিভের বাস্তবায়নে ‘আমাদের জীবন, আমাদের স্বাস্থ্য, আমাদের ভবিষ্যৎ’ এই প্রকল্পের …

Leave a Reply