নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটিতে ‘রক্ত নেওয়া’র গুজবে আতঙ্কিত অভিভাবক

রাঙামাটিতে ‘রক্ত নেওয়া’র গুজবে আতঙ্কিত অভিভাবক

‘বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের রক্ত সংগ্রহ করা হচ্ছে’ এবং ‘বিদ্যালয়ে রক্তাক্ত কাটা হাত’ পাওয়া গেছে এমন গুজবে আতঙ্কিত হয়ে শত শত অভিভাবক ভিড় জমায় বিদ্যালয়ে। বিদ্যালয়ে কয়েক’শ অভিভাবক জড়ো হওয়ার ঘটনায় হঠাৎ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা। খবর শুনে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে যোগ দেয় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীও। পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও শিক্ষকরা অভিভাবকদের বিষয়টি গুজব বলে নিশ্চিত করার পর অভিভাবকগণ বিদ্যালয় ত্যাগ করে। গতকাল সোমবার সকালে রাঙামাটি শহরের রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

বিদ্যালয়ে অবস্থানরত কয়েকজন অভিভাবক বলেন, হঠাৎ করেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়লো বিদ্যালয়ে কারা এসে সন্তানদের রক্ত চাইছে এমন কথা শোনার পর বিদ্যালয়ে ছুটে আসি। বিদ্যালয়ে এসে দেখি সবকিছু ঠিক আছে। শিক্ষকরাও জানাচ্ছেন, বিদ্যালয়ে কোনও সমস্যা হয়নি। তবুও ভয় কাজ করছে বলে জানালেন অভিভাবককরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণতোষ মল্লিক বলেন, সোমবার সকালে অভিভাবকদের মধ্যে ‘রক্ত নেওয়ার’ গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এসময় আতঙ্কিত অভিভাবকগণ বিদ্যালয়ে ভিড় জমান। পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও শিক্ষকরা অভিভাবকদের বিষয়টি গুজব বলে বুঝিয়ে শান্ত করে। তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক আমাকে বিদ্যালয় ছুটি দিয়ে দিতে বলেন কিংবা শিক্ষার্থীকে বাসায় নিয়ে যাবেন বললেও আমি তাদেরকে ছুটি দিইনি। কারণ ছুটি দিলে ঘটনাটা আরো বেশি চারদিকে ছড়িয়ে পড়তো। এতে সামনের দিনগুলিতে শিক্ষার্থী আসা বিদ্যালয়ে কমে যেতো।

এদিকে অভিভাবকদের আতঙ্ক দূর করার জন্য বিকেলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহরে সচেতনতামূলক মাইকিং করা হয়েছে। রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ জানিয়েছেন, চারদিকে রক্ত সংগ্রহ কিংবা ছেলেধরা বিষয়টি শ্রেফ গুজব। আমরা এই বিষয়ে সাধারণ জনগণকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। ইতোমধ্যে আমরা ডিপিইও’র মাধ্যমে সব বিদ্যালয়ে সচেতনতামূলক বার্তা দিতে বলেছি। গুজব অপপ্রচারকারীর সাথে কেউ জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে টিসিবি’র পেঁয়াজ বিক্রি

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)’র মাধ্যমে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে ৪৫ টাকা মূল্যে পেঁয়াজ …

Leave a Reply