নীড় পাতা » করোনাভাইরাস আপডেট » রাঙামাটিতে চালু হল বহুল প্রত্যাশিত পিসিআর ল্যাব

রাঙামাটিতে চালু হল বহুল প্রত্যাশিত পিসিআর ল্যাব

অবশেষে রাঙামাটিতে করোনা রোগী শনাক্তের জন্য বহুল প্রত্যাশিত পিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে স্থাপিত ‘রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতাল পিসিআর ল্যাব’র উদ্বোধন করেন করোনা প্রতিরোধে জেলাভিত্তিক দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব ও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চলের (বেপজা) চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী। এসময় টিকে গ্রুপের অর্থায়নে একটি অ্যাম্বুলেন্সও উপহার দেয়া হয় স্বাস্থ্য বিভাগকে।

উদ্বোধন শেষে সিভিল সার্জন বিপাশ খীসা জানিয়েছেন, এখন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নমুনা সংগ্রহ করে রিপোর্ট দেয়া সম্ভব হবে। এছাড়া প্রতিদিন ১০০ নমুনা সংগ্রহ করা হবে। সরকার চাইলে পাশের জেলার নমুনাও পরীক্ষা হবে বলে জানিয়েছেন জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের এই শীর্ষ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চলের (বেপজা) চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বলেন, এটি রাঙামাটিবাসীর দাবি ছিল। রাঙামাটির উপজেলাগুলো দুর্গম হওয়ার কারণে নমুনার ফলাফর পেতে সময় লাগতো। এতে করে সংক্রমণ হারও বৃদ্ধি পাওয়া শঙ্কা ছিল। এই ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর এখানকার জনগনণ কোন প্রকার বিলম্ব ও হয়রানি ছাড়া দিনে দিনে করোনার পরীক্ষার ফলাফল পবে। এছাড়া রাঙামাটির স্বাস্থ্যখাতে যেসব সীমাবদ্ধতা রয়েছে তা সহসায় সমাধান করতে একযোগে সবাই মিলে কাজ করে যাচ্ছি।

এর আগে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য বিষয়ক ব্যবস্থাপনাসহ সার্বিক বিষয়ে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন করোনা প্রতিরোধে জেলাভিত্তিক দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব পবন চৌধুরী। এতে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, জেলা প্রশাসক একেএম মামুুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর ও জেলা সিভিল সার্জন বিপাশ খীসা প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, বসুন্ধরা গ্রুপের ৬৯ লাখ টাকার অনুদানে রাঙামাটিতে স্থাপিত হলো পিসিআর ল্যাব। এছাড়া জেলা পরিষদের অর্থায়নে জেলায় সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টের কাজ চলমান রয়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

নানিয়ারচর সেতু : এক সেতুতেই দুর্গমতা ঘুচছে তিন উপজেলার

কাপ্তাই হ্রদ সৃষ্টির ৬০ বছর পর এক নানিয়ারচর সেতুতেই স্বপ্ন বুনছে রাঙামাটি জেলার দুর্গম তিন …

Leave a Reply