নীড় পাতা » করোনাভাইরাস আপডেট » রাঙামাটিতে করোনা শনাক্ত বেড়ে ৫৪৩

সর্বোচ্চ শনাক্ত শহরেই

রাঙামাটিতে করোনা শনাক্ত বেড়ে ৫৪৩

পাখির চোখে শহর রাঙামাটি। ছবি তুলেছেন জিয়াউল জিয়া

পার্বত্য জেলা শহর রাঙামাটি এবং জেলার বিভিন্ন উপজেলায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সোমবার একদিন নতুন করে কেউ আক্রান্ত না হওয়ায় করোনাশূন্য থাকার পর মঙ্গলবার আসা রিপোর্টে জেলায় নতুন করে আরও ৩২ জনের করোনা পজিটিভ হওয়ার রিপোর্ট এসেছে চট্টগ্রাম ভেটেনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাব থেকে। এনিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত বেড়ে দাঁড়ালো ৫৪৩ জন।

রাঙামাটি সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ও জেলার করোনা বিষয়ক ফোকাল পার্সন ডা. মোস্তফা কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নতুন শনাক্ত ৩২ জনের মধ্যে রাঙামাটি শহরেই ২৬ জন, জুরাছড়ি উপজেলায় ৩ জন, কাউখালীতে ১ জন, নানিয়ারচরে ১ জন এবং কাপ্তাইয়ে ১ জন আছেন।

রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য বলছে, ৬ মে দেশের সবশেষ জেলা হিসেবে রাঙামাটিতে প্রথম ধাপে চারজনের দেহে কভিড-১৯ শনাক্ত হয়। পরবর্তীতে এ সংখ্যা ক্রমান্বয়ে দাঁড়িয়েছে ৫৪৩ জনে। তবে সবচেয়ে বেশি ৩৪০ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে রাঙামাটি সদরেই। শনাক্তে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্থানে রয়েছে কাপ্তাই, এ উপজেলায় ৯২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এখন পর্যন্ত জেলায় সবচেয়ে কম সংক্রমণ হওয়া উপজেলা হলো বরকল। এ উপজেলায় মাত্র ৪ জন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

ইতোমধ্যে জেলায় ৩৮৫ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। বর্তমানে জেলায় প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছেন ৯ জন এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ জন। এছাড়া করোনা পরীক্ষার জন্য এ পর্যন্ত রাঙামাটি থেকে মোট ২৭১০টি নমুনা পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে রিপোর্ট এসেছে ২৬০৩টি, যার ৫৪৩টিই পজিটিভ। এখনো অপেক্ষমান নমুনা রিপোর্টের সংখ্যা ১০৭।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জুরাছড়িতে গুলিতে নিহত কার্বারির ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় স্থানীয় এক কার্বারিকে (গ্রামপ্রধান) গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী সন্ত্রাসীরা। রোববার …

Leave a Reply