নীড় পাতা » ব্রেকিং » রাঙামাটিতে ইউপিডিএফ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটিতে ইউপিডিএফ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় প্রসীত বিকাশ খীসা নেতৃত্বাধীন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) কর্মী পবিত্র চাকমাকে (৪২) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার দুপুরে লংগদু উপজেলা সদরের ভূইয়োছড়া এলাকায় তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। পবিত্র চাকমা ঘটনাস্থল ভূইয়োছড়ার পার্শ্ববর্তী গ্রাম ধর্মপাড়ার বাসিন্দা এবং শান্তিপ্রিয় চাকমার ছেলে।

এদিকে এ ঘটনায় সুধাসিন্ধু খীসা নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে (এমএন লারমা) দায়ী করেছে ইউপিডিএফ। তবে জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) এ অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে।

ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের নিরন চাকমা বলেন, ‘মঙ্গলবার দুুুপুর ১টার দিকে পবিত্র চাকমা ও অন্য একজন ইউপিডিএফ সদস্য সাংগঠনিক কাজে ভূইয়ো ছড়ায় (ডানে লংগদু) গেলে মহালছড়ির মুবাছড়ি থেকে ১০-১২ জন সংস্কারবাদী (জেএসএম-এমএন লারমা) সশস্ত্র সদস্য তাদের ওপর অতর্কিত গুলি চালায়। এতে ঘটনাস্থলে পবিত্র চাকমা নিহত হন, তবে অন্যজন অক্ষত অবস্থায় নিরাপদ স্থানে সরে যেতে সক্ষম হন।’

অভিযোগ অস্বীকার করে জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) লংগদু উপজেলা সভাপতি অলঙ্গ চাকমা বলেন, ‘এ সম্পর্কে আমরা কিছুই শুনতে পাইনি। তাদের সংগঠনের মধ্যে অনেক সমস্যা রয়েছে। তারাই তাদের কর্মীকে হত্যা করতে পারে। এতে আমরা জড়িত নই।’

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্ত জানিয়েছেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে।

ইউপিডিএফ’র প্রতিবাদ
রাঙামাটির লংগদুতে ইউপিডিএফ কর্মী পবিত্র চাকমা (৪২) হত্যার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি। মঙ্গলবার বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ইউপিডিএফ’র রাঙামাটি জেলা ইউনিটের সংগঠক সচল চাকমা ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ হত্যাকান্ডকে ‘কাপুরুষোচিত ও জঘন্য’ বলে মন্তব্য করেছেন।

তিনি বিবৃতি অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জনপ্রিয় হচ্ছে ‘তৈলাফাং’ ঝর্ণা

করোনার প্রভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল খাগড়াছড়ির পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র। তবে টানা বন্ধের পর এখন খুলেছে …

Leave a Reply