নীড় পাতা » ফিচার » লাইফস্টাইল » রাঙামাটিকে মিস করেন মডেল ও অভিনেত্রী অপর্ণা

রাঙামাটিকে মিস করেন মডেল ও অভিনেত্রী অপর্ণা

aparna_ghosh1‘২০০৩ সালে রাঙামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেয়ার পর রাঙামাটি ছেড়ে এসেছি,কিন্তু রাঙামাটি আমাকে ছাড়েনা,আমার স্মৃতিতে এখনো উজ্জ্বল প্রিয় রাঙামাটি। এখনো প্রায়ই রাঙামাটি যাই,স্কুলের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় চোখে পানি চলে আসে। রাঙামাটির জীবন,স্কুলের বান্ধবী এবং শিক্ষকদের ভীষণ মিস করি।’- এইভাবে নিজের আবেগ আর অনুভূতির গল্প বলছিলেন লাক্স ফটোসুন্দরী, মডেল অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ। পাহাড়টোয়েন্টিফোরের সাথে আলাপে জানিয়েছেন নিজের নানান গল্প।

২০০৬ সালে লাক্স চ্যানেল আই ফটোসুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে শীর্ষ চারে ঠাঁই করে নেন অপর্ণা। প্রতিযোগিতার পর চ্যানেল আই এর নাটক ‘ তবুও ভালোবাসি’র মাধ্যমে সিনে মিডিয়ায় আত্মপ্রকাশ অপর্ণা’র। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এখন কী নাটক কী মডেলিং সর্বত্রই অপর্ণার অবাধ বিচরণ। ধীরে ধীরে নিজেকে নিয়ে গেছেন সুসংহত অবস্থানে।aparna_ghosh2

মায়ের চাকুরি সূত্রেই রাঙামাটিতে শৈশব এবং কৈশর কেটেছে অপর্ণা’র। জানালেন, মা ঝর্ণা ঘোষ চাকুরি করতেন গনপূর্ত বিভাগে। সেই সূত্রে অফিসের পাশেই ছিলো বাসা। বাবা অলক ঘোষ রেলওয়ের চাকুরির সুবাধে বেশিরভাগ সময় চট্টগ্রামে থাকায় মা আর দুইবোনের সংসার মেতে থাকতো সারাক্ষন ভালোবাসায় স্নিগ্ধতায়।

aparna_ghosh4রাঙামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় গার্লস গাইডের সক্রিয় কর্মী ছিলেন অপর্ণা। নিজের স্কুলজীবনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বললেন, নিরূপা ম্যাডাম, অজ্ঞুলিকা ম্যাডাম, ফারহানা আপা, সাইফুল স্যার, অনীক স্যার সবাইকে খুব মিস করি। এখনো রাঙামাটি গেলে তাদের সাথে অবশ্যই দেখা করার চেষ্টা করি।

রাঙামাটি থাকার সময়টিকে জীবনের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সময় বর্ণনা করে অপর্ণা বলেন, রাঙামাটির জীবনটা অনেক সুন্দর ছিলো। মাঝে মাঝে সেই জীবনের কথা মনে হলে মন খারাপ হয়ে যায়,কান্না পায় ভীষণ। অপর্ণা বলেন, যত দূরে যাই,যেখানেই থাকি, রাঙামাটি আমার প্রাণজুড়েই থাকবে।
সর্বশেষ দুর্গাপূজায়ও রাঙামাটিতে মামার বাড়ীতে বেড়াতে আসা অপর্ণা জানান,তবে রাঙামাটিও বদলে যাচ্ছে ধীরে ধীরে। আমার মনে হয় মোবাইল নেটওয়ার্ক আসার আগের রাঙামাটিই ভালো ছিলো। এখন কেমন যেনো অচেনা হয়ে যাচ্ছে প্রিয় রাঙামাটি।aparna_ghosh6

রাঙামাটির আরেক লাক্স ফটোসুন্দরী টয়া সম্পর্কে তিনি বলেন,আমি খুব গর্বিত যে আমারই স্কুলের আরেক ছাত্রী ও ছোট বোন টয়াও লাক্স ফটোসুন্দরী হয়েছে। টয়ার বড় বোন খেয়া আমার বান্ধবী, আর টয়ার মা ফারহানা ম্যাম তো আমার খুবই প্রিয় শিক্ষক ছিলেন।aparna_ghosh5
মডেল ও অভিনেত্রী অপর্ণার চলচিত্রে অভিষেক হয় ‘থার্ড পারস সিঙ্গুলার নাম্বার’-এ অভিনয়ের মাধ্যমে। টার্মিনাল,অনুরোধ,চৌধুরী ভিলা,হৃদয়পুর,ফিফটি৫০ সহ অসংখ্য নাটকে অভিনয় করেছেন অপর্ণা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

অতিরিক্ত চা পানে যত সমস্যা!

ক্লান্তি কাটাতে চা! তবে অতিরিক্ত চা পানে হতে পারে নানান সমস্যা। পুষ্টি-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত …

Leave a Reply

%d bloggers like this: