নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » মুবাছড়ি বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব

মুবাছড়ি বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মুবাছড়ি বন বিহারে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে শুক্রবার শেষ হয়েছে দানোত্তম কঠিন চীবর দানানুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার ২৪ ঘন্টার মধ্যে বিশাখা প্রবর্তিত নিয়মে তুলা থেকে সুতা তৈরি করে চীবর বুনন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ভদন্ত যোগাসিদ্ধি মহাস্থবির। মুবাছড়ি বন বিহার কমিটির প্রধান উপদেষ্টা দায়িকা চপলা খীসার পৃষ্ঠপোষকতায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শুক্রবার সকাল ৯ টায় ইকো চাকমা ও বর্ষা চাকমার সঞ্চালনায় এই অনুষ্ঠানের প্রথমে শিল্পী আদর্শী চাকমা ও সুনীল তঞ্চংগ্যার সহযোগিতায় ধর্মীয় উদ্বোধনী সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। এরপর ত্রিশরণ সহ পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন রিতেস চাকমা, পঞ্চশীল প্রদান করেন ভদন্ত যোগাসিদ্ধি মহাস্থবির। সারাদিনের কর্মসূচিতে বুদ্ধ মূর্তি দান, সংঘদান, অষ্টপরিষ্কার দান, হাজার প্রদীপ দান, চীবর দান, কল্পতরু দান, আকাশ প্রদীপ দান সহ বিবিধ দান করা হয়। এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে সকল সত্বার হিতার্থে সমবেত প্রার্থনা ও ভিক্ষু সংঘ কর্তৃক ধর্মীয় দেশনা প্রদান করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গামারীঢালা বন বিহারের বিহার অধ্যক্ষ ভদন্ত বোধিপাল মহাস্থবির, খেদারমারা বনবিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত যোগাসিদ্ধি মহাস্থবীর, পানছড়ি শান্তিপুর অরণ্য কুঠিরের বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত শাসন রক্ষিত মহাস্থবিরসহ বিভিন্ন বিহারের ভিক্ষুগণ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, মহালছড়ি জোন অধিনায়ক লে: কর্নেল মেহেদি হাসান, মহালছড়ি ইউএনও প্রিয়াংকা দত্ত, জেলা পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমা, উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা, মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান রতন কুমার শীল, মুবাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বাপ্পি খীসা সহ বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার দায়ক দায়িকা বৃন্দ। উপস্থিত ভিক্ষু সংঘ ও অতিথিদেরকে ফুলের তোড়া ও ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করেন মুবাছড়ি বৌদ্ধ বিহার কর্তৃপক্ষ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মুবাছড়ি বন বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি জ্ঞান চাকমা। এছাড়াও সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। উক্ত অনুষ্ঠানে সকল সত্তার হিতার্থে ধর্ম দেশনা প্রদান করেন ভদন্ত সুমন মহাস্থবির, ভদন্ত যোগাসিদ্ধি মহাস্থবির, ভদন্ত বোধিপাল মহাস্থবির, ও ভদন্ত শাসন রক্ষিত মহাস্থবির। ভিক্ষুসংঘ ধর্মীয় দেশনাকালে সবাইকে হিংসা-বিদ্বেষ দূর করে শীল পালন করার পরামর্শ দেন এবং বৌদ্ধ ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে জাতিগত বিদ্বেষ পরিহার করে সম্প্রীতি রক্ষায় সকলকে মৈত্রীভাব পোষণ করার আহবান জানান।

খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে সবাইকে ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার আহবান জানান। বিশেষ করে উঠতি বয়সি ছেলেমেয়েদের চরিত্র গঠনের জন্য ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা উচিত বলে মনে করেন তিনি। এসময় তিনি মুবাছড়ি বন বিহারের বিভিন্ন সমস্যার বিষয়ে সমাধানের কথা উল্লেখ করে পরিচালনা কমিটিকে আগামী বাজেটে বিহার উন্নয়নের জন্য বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করার আশ্বাস প্রদান করেন।

এছাড়া কঠিন চীবর দানানুষ্ঠানে বাড়তি পূণ্য সঞ্চয়ের জন্য স্বাধীনতা হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা পরিষদ মহালছড়ি বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং পার্বত্য ত্রাণ ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালন করা হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বাঘাইছড়িতে এমএনলারমাপন্থী পিসিপি নেতা খুন

রাঙামাাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএনলারমা) সহযোগী ছাত্রসংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের …

Leave a Reply