নীড় পাতা » ফিচার » ক্যাম্পাস ঘুড়ি » মুখস্থ,মিথ্যা ও মাদককে ‘না’ বললো পাহাড়ের শিক্ষার্থীরা

মুখস্থ,মিথ্যা ও মাদককে ‘না’ বললো পাহাড়ের শিক্ষার্থীরা

gonit-pic-1ডাচ্ বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবের তুলনায় পাহাড়ের কনকনে শীত যেন কিছুই না। তা না হলে খুব ভোরে ছোট ছোট শিশুরা কেন বাবা মায়েদের ঘুম থেকে তুলে তাড়া দেবে রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজে যেতে। শুক্রবার রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজে হয়ে গেল রাঙামাটি অঞ্চলের ডাচ বাংলা ব্যাংক – প্রথম আলো গণিত উৎসব ২০১৪। উৎসবে শিক্ষার্থীরা মুখস্থ, মিথ্যা ও মাদককে সমস্বরে ‘না’ বলে।

সকাল আটটার পর থেকে রাঙামাটির বিভিন্ন এলাকাসহ খাগড়াছড়ি জেলা থেকে শিক্ষার্থীরা শিক্ষক অভিভাবকদের নিয়ে আসে রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজে। ‘গণিত শেখো, স্বপ্ন দেখো’ শ্লোগানকে সমানে রেখে সকাল সাড়ে নয়টায় উৎসবের উদ্বেধন হয়। এসময় বন্ধুসভার সদস্যদের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে রাঙামাটির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ড. মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জাতীয় পতাকা, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জাবেদ মোর্শেদ আন্তজার্তিক গণিত অলিম্পিয়াড পতাকা ও ভেন্যু প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ বৈশালি রায় জাতীয় অলিম্পিয়াড পাতাকা উত্তোলন করেন। এসময় মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে গণিত প্রতিযোগিতায় সাফল্য দেখাতে শুরু করেছে। তার প্রধান কৃতিত্বের দাবিদার প্রথম আলো, ডাচ বাংলা ব্যাংক ও বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি। দেশকে এগিয়ে নিতে ছাত্রছাত্রীদের বিজ্ঞান মনস্ক করে গড়ে তোলার বিকল্প নেই। আর গণিত উৎসব আয়োজনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞানের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে।’Rangamati-Math-03

সমাপনী অনুষ্ঠানে রাঙামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক বাঞ্চিতা চাকমা বলেন, ‘গণিত উৎসব আয়োজনের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের গণিত ভীতি দূর হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের আগ্রহ ও অংশগ্রহণও বাড়ছে।’ তিনি রাঙামাটিসহ পার্বত্য চট্টগ্রামকে পিছিয়ে পড়া অঞ্চল বলে উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের গণিত চর্চাসহ শিক্ষা মনোনিবেশ করার উপদেশ দেন এবং সে ব্যাপারে সচেতন হতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান।

রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. সদরুদ্দিন আহমেদ বলেন, গণিত উৎসব আয়োজনের মাধ্যমে প্রথম আলো ও ডাচ্ বাংলাদেশ ব্যাংক জাতির প্রতি বিরাট অবদান রেখে চলেছে। এ উৎসবকে ঘিরে শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষার প্রতি অনুপ্রেরণা সৃষ্টি হচ্ছে।
ভেন্যু প্রতিষ্ঠান রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের উপাধ্যক্ষ বৈশালী রায় বলেন, ‘ভীতি দূর করে গণিতকে আগ্রহের বিষয়ে পরিণত করতে হবে। গণিত ছাড়া সমাজ প্রগতির দিকে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়।’ তিনি তাঁদের প্রতিষ্ঠানকে ভেন্যু হিসেবে বেছে নেওয়ায় আয়োজক সংগঠনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং উৎসব আয়োজন অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানান। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন প্রথম আলোর রাঙামাটি নিজস্ব প্রতিবেদক হরি কিশোর চাকমা।

উৎসবে ডেফোডিল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ও গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির একাডেমিক কাউন্সিলর জাবেদ মোর্শেদের সঞ্চালনায় প্রশ্নোত্তর পর্বে শিক্ষার্থীদের গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ে নানা প্রশ্নের উত্তর দেন রাঙামাটি সরকারি কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মনজু মিঞা, রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সনাতন দাস, রাঙামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. বশির আহমেদ এবং লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের শিক্ষক নূর মোহাম্মদ ও পরান্টু চাকমা। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্বে গণিত উৎসবের গান ও গণিত জয়ের গান পরিবেশন করেন রাঙামাটি বন্ধুসভার সদস্যরা। এছাড়া লোকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থী পুষ্পাঞ্জলি চাকমা, মাধবী চাকমা, সন্তোষী চাকমা, প্রজ্ঞাযশ তঞ্চঙ্গ্যা, প্রজ্ঞা লাবনী চাকমা, রেনে রায় ও ছোয়া দেওয়ান গান পরিবেশন করে।Rangamati-Math04

উৎসবে চারটি ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন, প্রথম রানার্সআপ ও দ্বিতীয় রানার্সআপ হওয়া ৩০ জনকে সনদপত্র ও মেডেল দেওয়া হয়। এর মধ্যে হায়ার সেকেন্ডারিতে রাঙামাটির সরকারি মহিলা কলেজের আফরোজা আক্তার, সেকেন্ডারিতে লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের রুমকি তঞ্চঙ্গ্যা, রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএম গোলাম সরওয়ার অপু ও ভূবন দে, জুনিয়র ক্যাটাগরিতে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট স্কুল ও কলেজের মেহেদী হাসান ও লেকার্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের সানজিদা হোসেন এবং প্রাইমারিতে রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের আবিদ শাহরিয়ার, খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের ইয়ান চাকমা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে । উৎসবে রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলার ২১টি বিদ্যালয়ের প্রায় ৬০০ শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে। উৎসব আয়োজনের ব্যবস্থাপনায় ছিল রাঙামাটি বন্ধুসভা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে মাছের পোনা অবমুক্ত

রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে কার্প জাতীয় মাছের উৎপাদন ও বংশবৃদ্ধির লক্ষে লংগদুতে পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে। …

Leave a Reply