নীড় পাতা » খেলার মাঠ » মুকুল ফৌজের সাথে ১-১ গোলে ড্র করলো ইয়াং রাঙামাটি

মুকুল ফৌজের সাথে ১-১ গোলে ড্র করলো ইয়াং রাঙামাটি

2014-01-01-0749এবারের লীগের সবচেয়ে বেশি গোল হজম করা ইয়াং রাঙামাটি ক্লাব অবশেষে জেলা মুকুল ফৌজের সাথে ১-১গোলে ড্র করলো। ইতোমধ্যে ইয়াং রাঙামাটি নিজেদের অপর তিনটি ম্যাচে বিশাল ব্যবধানে হারে প্রতিপক্ষ দলের কাছে। লীগে এ পর্যন্ত ১৬ টি গোল হজম করে ইয়াং রাঙামাটি।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ও প্রাইম ব্যাংক প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের বৃহস্পতিবারের খেলায় মুকুল ফৌজ ও ইয়াং রাঙামাটির ম্যাচটি শেষ হয় ১-১ গোলের ড্র দিয়ে।
রাঙামাটি চিং হ্লা মং চৌধুরী মারি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলার শুরু থেকেই উভয় দলের খেলোয়াড়রা জয় ছিনিয়ে নিতে আক্রমন পাল্টা আক্রমন চালাতে থাকে। আগের ম্যাচগুলোতে ইয়াং রাঙামাটি বেশ বাজে পারফরমেন্স দেখিয়েছিল। আর এ পারফরম্যান্সের কারণে তিনটি ম্যাচেই গোলবন্যায় ভাসতে হয়েছিল। কিন্তু এদিনের ম্যাচে সম্পূর্ণ ভিন্নরূপে দেখা মিলে ইয়াং রাঙামাটিকে। নিজেদের সেরাটুকু উজাড় করে দিয়ে খেলে ইয়াং রাঙামাটি। ফলে প্রতিপক্ষ জেলা মুকুল ফৌজের প্রথমার্ধে একাধিক সুযোগ নষ্ট করে দেয় তারা। প্রতিপক্ষের ফরোয়ার্ডদের আক্রমন শক্তভাবে প্রতিরোধ করে ইয়াং রাঙামাটি। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূণ্যভাবে।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই মুকুল ফৌজের রক্ষণভাগ ভেদ করে একের পর আক্রমন চালায় ইয়াং রাঙামাটি। ফলে ২৯মিনিটের মাথায় দলের ৮নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় সুমন গোল করে দলকে ১-০গোলে এগিয়ে নেয়। গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে খেলা জেলা মুকুল ফৌজ ৩৫মিনিটের মাথায় পেনাল্টির সুযোগ পায়। দলের ১১নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় ছোটন চাকমা পেনাল্টি শট নিলে তা ফিরিয়ে দেন প্রতিপক্ষ ইয়াং রাঙামাটির গোলরক্ষক ইকবাল করিম। গোলকিপারের ফিরিয়ে দেয়া সে শট আবারো টেনে নিয়ে গোল নিশ্চিত করে ছোটন চাকমা। ফলে খেলায় ১-১ গোলে সমতা ফিরে। নির্ধারিত সময়ে আর কোনো দল গোল করতে না পারায় ১-১ গোলে ম্যাচ ড্র হয়। আর লীগে জয়ের স্বাদ না পেলেও শেষ ম্যাচে ড্র করে ১ পয়েন্ট নিয়ে মোটামুটি মান রক্ষা করে ইয়াং রাঙামাটি।
প্রসঙ্গত, ২৬ডিসেম্বর রাইজিং স্টার স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে ৬-০গোলে, ৭জানুয়ারী ইয়ুথ স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে ৮-০ গোলে এবং ১০জানুয়ারী আবাহনী ক্রীড়া চক্রের কাছে ১-০গোলে হারে ইয়াং রাঙামাটি।

এদিন খেলা পরিচালনা করেন সোহেল আহম্মেদ। খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন ইয়াং রাঙামাটির গোলরক্ষক ইকবাল করিম। আর ম্যান অব দ্যা ম্যাচের এক হাজার টাকা নগদ পুরস্কার তুলে দেন অবিভক্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলাদলের সাবেক ফুটবলার ও ইউনিসেফের সাবেক কর্মকর্তা বিক্রম কিশোর চাকমা।

রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন-এর আয়োজনে এ লীগের মিডিয়া পার্টনার পাহাড় টোয়েন্টিফোর ডটকম

শুক্রবার একই মাঠে একই সময়ে ছদক ক্লাবের বিপক্ষে নামবে প্রতিভাস ক্লাব
Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান কুজেন্দ্রের

কভিড-১৯ মহামারী উত্তরণে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য …

Leave a Reply