নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » মানবেতর জীবন মাটিরাঙ্গার গুচ্ছগ্রামবাসির

মানবেতর জীবন মাটিরাঙ্গার গুচ্ছগ্রামবাসির

মাটিরাঙ্গায় গুচ্ছগ্রামের প্রকল্প চেয়ারম্যান নিয়োগকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট জটিলতার কারণে রেশন না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে উপজেলার ২৪টি গুচ্ছগ্রামের ৯ হাজার ২‘শ ৬২টি পরিবার। এ অবস্থায় বন্ধ রয়েছে জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার গুচ্ছগ্রামগুলোর রেশন বিতরন।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, সর্বশেষ কোরবানীর ঈদের আগে জুলাই-আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর মাসের রেশন প্রদানের পর চার মাস অতিবাহিত হতে চললেও কবে বা কখন অক্টোবর-নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসের রেশন প্রদান করা হবে তা কেউই নিশ্চিত করে বলতে পারেনি। ফলে গুচ্ছগ্রামের রেশনকার্ডধারী পরিবারগুলোতে অভাব-অনটন ঝেঁকে বসেছে। রেশন না পেয়ে গুচ্ছগ্রামবাসী পরিবারগুলোতে হাহাকার চলছে।

সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ইতিমধ্যে জেলার অন্যান্য উপজেলায় অক্টোবর-নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসের রেশন প্রদান করা হলেও গুচ্ছগ্রামের প্রকল্প চেয়ারম্যান নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে মামলার কারণে রেশন বিতরণে স্থগিতাদেশ থাকায় জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার ২৪টি গুচ্ছগ্রামে রেশন বিতরণ স্থগিত রয়েছে।

মাটিরাঙ্গার খেদাছড়া গুচ্ছগ্রামের রেশনকার্ডধারী মো: আবদুর রশিদ মিয়া বলেন, রেশন না পেয়ে আমরা মানবতের জীবন-যাপন করছি। খেয়ে-না খেয়ে আমরা কোন রকমে বেঁচে আছি। এভাবে কোন মানুষের জীবন চলতে পারেনা। কবে আমরা রেশন পাবোনা সেকথাও কেউ বলতে পারছেনা। একই কথা বলছেন, বেলছড়ি গুচ্ছগ্রামের মো: মতিন মিয়া, মো: আবদুল বারেক ও পূর্ব খেদাছড়ার হাফেজ মিয়াসহ অনেকেই। তারা অভিলম্বে রেশন বিতরনের দাবী জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে প্রশাসনের তত্বাবধানে রেশন বিতরণ করা হোক। আমরা আমাদের রেশন চাই। আমরা আর কোন ধরনের ভোগান্তি চাই না।

এ বিষয়ে একাধিকবার কথা বলার চেষ্ঠা করা হলেও গুচ্ছগ্রামের সাবেক ও বর্তমান কোন প্রকল্প চেয়ারম্যানই মুখ খুলতে রাজি হননি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

পানছড়িতে পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

খাগড়াছড়িতে পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টায় পানছড়ির লতিবান ইউনিয়নের কারিগর পাড়ায় …

Leave a Reply