নীড় পাতা » ব্রেকিং » মানববন্ধনে যা বললেন সুধীজনরা

মানববন্ধনে যা বললেন সুধীজনরা

বিদ্যুতের দাবিতে বৃহস্পতিবার রাঙামাটি শহরে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আলোচনায় তুলে আনেন। তার চুম্বক অংশ নীচে তুলে ধরা হলো-

akbarথলের বিড়াল বের করে দিলেন মেয়র আকবর
নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী থলের বিড়াল বের করে দিলেন। বিদ্যুতের দাবিতে সংহতি বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, কাউখালী উপজেলায় আছেন বিদ্যুৎ মন্ত্রনালয়ের সচিবের ভাগিনা। আর সচিবের জোর খাটান তিনি, চাপ দেন কাউখালীতে বাড়তি বিদ্যুৎ সরবরাহের। ফলে বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগ বাধ্য হয়ে বাড়তি বিদ্যুৎ সরবরাহ করেন এই উপজেলায়। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় পুরো জেলার মানুষকে। পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীর এমন চমকপ্রদ তথ্যে বেশ বিস্মিত হন উপস্থিত লোকজন।

‘বিদ্যুৎ বিভাগের গাফিলতি’ বললেন সাবেক মেয়র ভূট্টোbutta-03
সাবেক পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম চৌধুরী ভুট্টোর অভিযোগ বিদ্যুৎ বিভাগের গাফিলতির কারণেই জেলা জুড়ে বারবার লোডশেডিং। তিনি অনুরোধ জানান বিতরন বিভাগকে। এই ভোগান্তি থেকে রেহাই দিতে। সাবেক মেয়র বলেন, রাঙামাটিবাসি বরাবরই শান্তিপ্রিয়,কোন সহজে কোন সংঘাতে যেতে চায়না। কিন্তু এইভাবে বারবার কষ্ট পেলে,তারা সবসময় এটা মেনে নেবে, এমনটা ভাবা বোকামি হবে।

‘গনবিস্ফোরন হতে পারে’ বললেন আবু সৈয়দabu-sayed-04
বৃহত্তর বনরূপা ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সভাপতি ও তরুন সমাজসেবক আবু সৈয়দ বলেন, বিদ্যুৎ মানুষের মৌলিক চাহিদা। আমরা মৌলিক চাহিদার জন্য মাঠে নেমেছি। এটি বিদ্যুৎ বিভাগের জন্য লজ্জার। আর যেনো কোনো মাঠে নামতে না হয় সেজন্য তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পিডিবিকে অনুরোধ জানান তিনি। তিনি বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে যদি বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান না হয় তবে গনবিস্ফোরণ ঘটতে পারে। তখন কিন্তু সামাল দেয়া কষ্ট হয়ে যাবে।

‘ক্ষতিগ্রস্থদের সাথে প্রতারনা’ বললেন প্রেসক্লাব সভাপতি রুবেলrubel
রাঙামাটি প্রেস ক্লাব সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল বলেন, কাপ্তাই বাধের ফলে এখানকার লোকজন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিল এখানে বিনামুল্যে বিদ্যুৎ দেয়া হবে। কিন্তু বিনামূল্যে বিদ্যুৎ দেয়াতো দুরের কথা টাকা দিয়েও বিদ্যুৎ পাচ্ছেন না জেলাবাসী। এটা রাঙামাটিবাসীর জন্য প্রতারনা। তিনি সারাদেশে সরবরাহের আগে রাঙামাটির চাহিদা পূরণ করার দাবি জানান।

‘যেখানে উৎপাদন সেখানে বিদ্যুৎ পায়’ জানালেন ললিত সি চাকমাlalit
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সাস এর প্রধান নির্বাহী ললিত সি চাকমা তার বক্তব্যে উদাহরণ টেনেছেন নেপালের। নেপালের কাঠমুন্ডুতে বিদ্যুৎ কখন কত ঘন্টার জন্য থাকবেনা সেটা ছয় মাস আগেই নোটিশের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হয়। সেখানে মফস্বলে চব্বিশ ঘন্টা বিদ্যুৎ যায়না। তার কারণ উৎঘাটন করতে গিয়ে সেখানকার স্থানীয়রা জানান, যেখানে বিদ্যুৎ উৎপাদন হয় সেখানকার চাহিদা মিটিয়ে তারপরেই রাজধানীতে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। এটা সেই দেশের কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্ত। তিনি এই ধরনের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

‘শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার ব্যাঘাতে’র কথা বললেন শামসুল আলমsamsu
রাঙামাটিবাসি বিদ্যুতের কারণে অসহ্য হয়ে উঠেছে এবং কোমলমতি স্কুলকলেজের শিক্ষার্থীরাদের পড়াশুনাও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মন্তব্য করে অনলাইন পত্রিকা সিএইচটিনিউজ এর সম্পাদক শামসুল আলম বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগ যত দ্রুত রাঙামাটির মানুষের কষ্ট বুঝবে,ততই মঙ্গল। না হলে রাঙামাটির মানুষ জানে কিভাবে দাবি আদায় করে নিতে হয়।

‘ব্যবসায়িরা অতিষ্ট’ জানালেন দেবব্রত চৌধুরী কুমকুমkumda
শহরের পুরনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অন্যতম শৈল বিপনী বিতান ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি দেবব্রত চৌধুরী কুমকুম বলেন, ব্যবসায়িরা অতিষ্ঠ। আসন্ন দুর্গাপূজার আগে এমন বিদ্যুতের বিড়ম্ভনা মেনে নেয়া কঠিন। অবিলম্বে সমস্যার সুরাহা না হলে ব্যবসায়িরা মাঠে নামতে বাধ্য হবে বলেও সতর্ক করে দেন তিনি।

ভুল ভাঙালেন ফজলে এলাহীalahi
‘খাগড়াছড়ি পিডিবি’র নির্বাহী প্রকৌশলী রাঙামাটিতে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই বিদ্যুতের এই বেহাল অবস্থা !’ বিদ্যুতের অসহনীয় লোডশেডিংয়ে তিক্ত-বিরক্ত জেলাবাসীর মুখে মুখেই এই বুলি। হাটে-ঘাটে বাড়িতে কিংবা বাড়িতে সবখানেই এই আলোচনা শোনা যায়। সেই ভুল ভাঙালেন সাংবাদিক ফজলে এলাহী। তিনি তার বক্তব্যে জানান, ‘নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে আমার একাধিকবার আলোচনা হয়েছে। তিনি তাঁর চাকুরিজীবনে কখনো খাগড়াছড়িতে দায়িত্ব পালন করেননি। এটা মানুষের ভুল ধারনা।’ তিনি বিদ্যুতের নির্বাহী প্রকৌশলীর বরাত দিয়ে জানান, বিদ্যুৎ বিভাগ আগামী শনিবার ক্র্যাশ প্রোগ্রাম চালাবে বলে জানিয়েছে। এরপর সমস্যার সমাধান হবে বলে আশ্বস্থ করেছেন নির্বাহী প্রকৌশলী, জানান তিনি। তবে এরপরও সমস্যার সমাধান করা না হলে কঠোর কর্মসূচীর হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

‘ডিজিটাল যুগে তরুণরা ফেসবুক নিয়েই ব্যস্ত’

‘চলো গ্রন্থাগারে চলো-দেখি সম্ভাবনার আলো’ এ শ্লোগান নিয়ে রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো দুই দিনব্যাপী পাবলিক …

Leave a Reply