নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » মাটিরাঙ্গায় এক যুবকের হাত কেটে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা

মাটিরাঙ্গায় এক যুবকের হাত কেটে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা

Matiranga-NEWS-Picপার্বত্য খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় মো: জাহাঙ্গীর আলম (৩৪) নামে এক যুবকের হাত কেটে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা। সে গোমতির মৃত খলিলুর রহমান‘র ছেলে। বুধবার গভীর রাতে মাটিরাঙ্গা উপজেলা সদরের খুব কাছাকাছি হরিধন মগ পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ে স্থানীয়রা মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।

জানা গেছে, মো: জাহাঙ্গীল আলম দীর্ঘ দিন ধরে হরিধন মগ পাড়ায় জনৈক আলী মিয়ার দোকানে চাকরি করতো। ঘটনার দিন রাত সাড়ে তিনটার দিকে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে তিন পাহাড়ী যুবক তার দোকানে এসে ডাকাডাকি করতে থাকে। এ সময় মো: জাহাঙ্গীর আলম দোকান খুলতে রাজি না হলে তারা তাকে নানা ধরনের হুমকি প্রদান করে। এসময় ভীত হয়ে জাহাঙ্গীর আলম পেছনের দরজা দিয়ে পালাতে চাইলে তারা তাকে কুপিয়ে মারাত্বক জখম করে। এসময় সন্ত্রাসীরা তার বাম হাতের কব্জি কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এবং তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মংসাথোয়াই মারমা (২৭) ও অংকাচাই মারমা (৩৪) নামে দুই পাহাড়ী যুবককে আটক করেছে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ। তারা উভয়েই হরিধন মগ পাড়ার বাসিন্দা। সহকারী পুলিশ সুপার (রামগড় সার্কেল) মো: শাহজাহান হোসেন‘র নেতৃৃত্বে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ তাদেকে হরিধন মগ পাড়া থেকে আটক করে।

ঘটনার সাথে জড়িতরা চুক্তি বিরোধী ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফের কর্মী বলে স্থানীয় বিভিন্ন সুত্র নিশ্চিত করেছে। এদের মধ্যে অংসা মরমা ইউপিডিএফের স্থানীয় কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে।

ঘটনার কারন খতিয়ে দেখা হচ্ছে জানিয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (রামগড় সার্কেল) মো: শাহজাহান হোসেন বলেন, এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই পাহাড়ী যুবককে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বিদ্যুৎ সুবিধাবঞ্চিত মহালছড়ি সদরের ২ গ্রামের মানুষ

আধুনিক প্রযুক্তির ক্রমবিকাশে পাল্টে যাচ্ছে দুনিয়া। প্রতিনিয়ত উদ্ভাবন হচ্ছে নতুন নতুন আবিষ্কার। মানুষের জনজীবনে পড়ছে …

Leave a Reply