নীড় পাতা » বান্দরবান » বৈদ্যুতিক ফাঁদে বুনোহাতির মৃত্যু : কৃষকের বিরুদ্ধে মামলা

বৈদ্যুতিক ফাঁদে বুনোহাতির মৃত্যু : কৃষকের বিরুদ্ধে মামলা

বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি পূর্ব চাককাটার ঝিরিতে একটি বুনো হাতি মৃত্যুর ঘটনায় অবশেষে হত্যা মামলা করেছে বন বিভাগ। সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন খাঁন বাদী হয়ে বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২ এর ৩৬ (১) ধারা মোতাবেক স্থানীয় কৃষক আবদুল্লাহর (৫২) বিরুদ্ধে উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি করেন। বিবাদী আবদুল্লাহ চাককাটার ঝিরির বাসিন্দা মৃত আবু শামার ছেলে। এদিকে সোমবার বন বিভাগের বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক নার্গিস সুলতানা ও অসীম মল্লিকের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সূত্র জানায়, গত শনিবার সকালে কুমারী চাককাটার ঝিরিতে আড়াই থেকে তিন বছর বয়সী একটি বুনো হাতির মৃতদেহ দেখে অধিবাসীরা বন বিভাগ কর্তৃপক্ষকে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন খান ও প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. জুয়েল মজুমদার ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পাশাপাশি ময়না তদন্তের জন্য নমুনা সংগ্রহ করেন।

এ বিষয়ে সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন খান বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্টে বৈদ্যুতিক ফাঁদে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বিধায় বিধি মোতাবেক জড়িতের বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা মামলা করা হয়েছে। (পিওআর মামলা নং- ৯, তারিখ- ১৭/১১/১৯ইং)

হাতি হত্যার অভিযোগে আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা রুজুর সত্যতা নিশ্চিত করে লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এস.এম. কায়চার জানান, বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতেই ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের পূর্ব চাককাটা ঝিরিতে বুনো হাতিটিকে হত্যা করা হয়েছিল। তাই বিধি মোতাবেক দোষীর বিরুদ্ধে আদালতে হত্যা মামলা করা হয়।

সম্প্রতি উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে দুইটি হাতির অস্বাভাবিক মৃত্যুর বিষয়ে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি জানায়, অভিযুক্তদের আইনের আওতায় এনে এবং স্থানীয়দের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে বন্য প্রাণীকে সংরক্ষণ করতে হবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

‘ডিজিটাল যুগে তরুণরা ফেসবুক নিয়েই ব্যস্ত’

‘চলো গ্রন্থাগারে চলো-দেখি সম্ভাবনার আলো’ এ শ্লোগান নিয়ে রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো দুই দিনব্যাপী পাবলিক …

Leave a Reply