নীড় পাতা » ব্রেকিং » বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেলের কার্যক্রম স্থগিতের দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেলের কার্যক্রম স্থগিতের দাবি

DSC00388রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ‘ছাত্র নামধারি কতিপয় বহিরাগত’ আখ্যা দিয়ে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম স্থগিত করার দাবি জানিয়েছে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সহযোগি দুই সংগঠন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন।

বুধবার সকালে রাঙামাটি শহরে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে তারা এই দাবি জানান। একই সময় তারা পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়িত না হওয়া প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত রাখার দাবি জানিয়ে বলেন, সরকার যদি পেশিশক্তি দিয়ে জোর করে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেনি কার্যক্রম শুরু করে,তাহলে এর পরিণতি শুভ হবেনা এবং এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও সরকারকে সতর্ক করে দেন তারা। একই সাথে যে কোন অনাকাংখিত ঘটনার জন্য সরকারই দায়ি থাকবে বলেও সতর্ক করে দেয় তারা।

বক্তারা, বিশ্ববিদ্যালয়টিকে ‘বিতর্কিত’ আখ্যা দিয়ে এর শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন,সরকার নিরীহ শিক্ষার্থীদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহারের পাঁয়তারা করছে। তারা শিক্ষার্থীদের সরকারের ‘ষড়যন্ত্রে’ সামিল না হওয়ার আহ্বান জানান।

পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সভাপতি বাচ্চু চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন অধিরাম চাকমা,সুইনু মারমা,পুলক চাকমা,টোয়েন চাকমা। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জনসংহতি সমিতির নেতা উদয়ন ত্রিপুরা।

প্রসঙ্গত,জনসংহতি সমিতির বিরোধীতার মুখে গত ১০ জানুয়ারি রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের ক্লাশ শুরু হলেও রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এর ক্লাশ এখনো শুরু হয়নি। গত ১১ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা ক্লাশ শুরুর দাবিতে মানববন্ধন করে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে। মেডিকেল কলেজে ইতোমধ্যেই দুই ব্যাচে ১০০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে আর বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রথম ব্যাচে ৭৩ জন শিক্ষার্থী ভর্তি শেষে ক্লাশ শুরুর প্রতীক্ষায় আছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে বিজ্ঞান মেলা

‘তথ্য প্রযুক্তির সদ্বব্যবহারঃ আসক্তি রোধ’ প্রতিপাদ্য বিষয়ের আলোকে ৪২তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ উপলক্ষে …

Leave a Reply