নীড় পাতা » পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়া » বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থীর গণসংযোগ

রাঙামাটি পৌর নির্বাচন

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থীর গণসংযোগ

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত কোদাল মার্কার মেয়র প্রার্থী মো. আব্দুল মান্নান রানা বলেছেন, কোদাল মার্কাকে মেয়র নির্বাচিত করা হলে কৃষক শ্রমিক, ক্ষেতমজুর, খেটে খাওয়া মেহনতি মানুষের কল্যাণে কাজ করবো, শুধু তাই নয় রাঙামাটিতে অসংখ্য ফার্নিচার কারখানা, এসব কারখানার শ্রমিক কর্মচারী ও মালিকদের সাথে আলোচনা করে রাঙামাটির পৌর এলাকায় জমি বরাদ্দ করে ফার্নিচার শিল্প এলাকা গড়ে তুলে আধুনিক ও পরিকল্পিত নগরীতে পরিণত করবো। এছাড়া আমার নির্বাচনী ইশতেহারে উল্লেখিত ২০ দফা রাস্তা-ঘাট, স্কুল, পৌর এলাকা নিরাপত্তা, আলোকিতকরণ, আধুনিকায়ন, আবর্জনা ও দুর্গন্ধমুক্ত করে শহরকে “ফ্রি ওয়াইফাই” সংযোগ দিয়ে “হ্যালো মেয়র” অ্যাপস তৈরি ইত্যাদি করে দ্রুত নাগরিক সমস্যা সমাধান দিয়ে পৌরবাসীর সুখে-দুঃখে পাশে থাকতে চাই।

শনিবার নির্বাচনী প্রচারণাকালে রাঙামাটি পৌরবাসীর সাথে এসব কথা বলেন বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত কোদাল মার্কার মেয়র প্রার্থী মো. আব্দুল মান্নান রানা। এসময় পৌরবাসী ভোটের নিরপেক্ষতা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন এবং নির্বাচন সুষ্ঠু হলে ভোট কেন্দ্রে এসে নিজের ভোট মেহনতি মানুষের কল্যাণে কোদাল মার্কায় প্রয়োগ করবেন বলেও ভোটাররা জানান। তিনি বলেন, আমরা কোদাল মার্কা রাঙামাটি পৌরসভা জবাবদিহিতার আওতায় আওতায় এনে একটি সুশৃঙ্খল গণসেবা কেন্দ্রে পরিণত করতে চাই। নাগরিক সুবিধা বাড়ানোর জন্য আমরা প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয় স্থাপন করবো এবং প্রতি ৩ মাস পরপর পৌরবাসীকে নিয়ে গণশুনানি করা হবে।

মেয়র প্রার্থী রানা এসময় বলেন, আমরা গণমানুষের রাজনীতি করি আমরা সাধারণ মানুষের ভোটের ও ভাতের অধিকার অধিকার নিশ্চিত করার আন্দোরনের অংশ হিসেবে নির্বাচনী মাঠে নেমেছি, কাজেই প্রত্যেক নাগরিক নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার জন্য ভোট কেন্দ্রে আসার এবং নিজের ভোটাধিকার নিজে প্রয়োগ করে সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সামিল হওয়ার আহবান জানান।

ভোটাররা ক্ষোভের সুরে বলেন, দিনের ২টা বাজে রাস্তায় বের হলেও পৌরসভার ময়লা আবর্জনার গাড়ি যত্রতত্র দুর্গন্ধ ছড়িয়ে রাঙামাটির পরিবেশকে ভারি করে তুলেছে। তারা এসব অপরিকল্পিত পৌর প্রশাসন থেকে মুক্তি পেতে চান। এসময় মেয়রপ্রার্থী রানা রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টার মধ্যে পৌরসভার সমস্ত ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে একটি পরিপাটি শহর উপহার দেওয়ার শতভাগ অঙ্গিকার করেন।

রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে প্রচারণার তৃতীয় দিনে শনিবার ভেদভেদী থেকে শুরু করে কলেজ গেইট, কল্যাণপুর বাজার, টিএন্ডটি ও দেবাশীষ নগর এলাকায় প্রচার প্রচারনাকালে ও তার কর্মী সমর্থকরা প্রচারণায় মাঠ-ঘাট চষে বেড়াচ্ছেন। তাদের দাবি যোগ্য দক্ষ জনদরদী মেয়র চাই, সাধারণ মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার চাই।

আসন্ন ১৪ ফেব্রুয়ারি রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনী প্রচারণাকালে মেয়র প্রার্থী রানা পৌর এলাকার নানা সমস্যার কথা ভোটারদের কাছ থেকে শোনেন এবং পৌরবাসীর সমস্যা সমাধানে তার ২০ দফা উল্লেখিত নির্বাচনী ইশতেহার ও লিপলেট বিতরণ করেন। (বিজ্ঞপ্তি)

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে দুর্যোগ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

রাঙামাটির লংগদুতে উপজেলা পর্যায়ে ‘দুর্যোগবিষয়ক স্থায়ী আদেশাবলী (এসওডি)-২০১৯’ অবহিতকরণ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার লংগদু …

Leave a Reply