নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » বান্দরবান-চট্টগ্রাম সড়কে আবারো আগ্রাসি জামাত

বান্দরবান-চট্টগ্রাম সড়কে আবারো আগ্রাসি জামাত

Bandarban-Jamat-Pic_1বান্দরবান-চট্টগ্রামের হলুদিয়া,বাজালিয়া এলাকায় ৫টি যানবাহন ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। এসময় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা প্রধান সড়কে প্রকাশ্যে লাঠি-সোঠা এবং দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মিছিল করেছে। বৃহস্পতিবার বিকালে জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার রিভিউ শুনানীর রায়ের পর বান্দরবানের হলুদিয়া থেকে বান্দরবান-চট্টগ্রাম মহাসড়কের প্রায় ৭ কিলোমিটার এলাকায় বড় বড় গাছের গুড়ি ফেলে,সড়কের পাশের গাছ কেটে এবং টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রেখেছে জামায়াত-শিবিরের লোকজনরা। মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে লাঠি-সুটা এবং দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রাস্তায় মিছিল করেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। এসময় তারা ৩টি মটর সাইকেলসহ ৫টি যানবাহন ভাংচুর এবং অগ্নিসংযোগ করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা পুলিশ ধাওয়া করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

বান্দরবান-চট্টগ্রাম প্রধান সড়ক পুরোটাই দখল করে লাঠি-সোঠা নিয়ে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের মহড়া দিতে দেখাগেছে। বান্দরবান-চট্টগ্রাম সড়কে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

সাতকানিয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ জানান, জামায়াত-শিবিরের ধংসাস্তুপ কর্মকান্ডের খবর পেয়েছি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের চেষ্ঠা চলছে।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহম্মেদ জানান, বান্দরবান-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঝামেলা হচ্ছে। কিন্তু জেলার অভ্যন্তরে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। অপ্রীতকর ঘটনা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন হয়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লামায় তক্ষকসহ ৩ পাচারকারী আটক

পাচারকালে বান্দরবানের লামা উপজেলা থেকে ৫টি তক্ষকসহ ৩ পাচারকারীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে উপজেলার …

Leave a Reply