নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » বান্দরবানে মুখোমুখি মারমুখী জেরি-মাম্যাচিং সমর্থকরা

বান্দরবানে মুখোমুখি মারমুখী জেরি-মাম্যাচিং সমর্থকরা

Bandarban-BnP-Pic_2বান্দরবানে মারমুখী অবস্থানে জেরী-মাম্যাচিং সমর্থক বিএনপির দুগ্রুপের নেতাকর্মীরা। পাল্টাপাল্টি মিছিল-সমাবেশে দুগ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেত্রী ম্যাম্যাচিং গ্রুপের সঙ্গে পুলিশের বাকবিতন্ডা ও ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরে পুলিশসহ বিপুল পরিমাণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
সোমবার নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার এবং বিএনপির শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবীতে সারাদেশে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৮৪ ঘন্টার হরতাল কর্মসূচীর দ্বিতীয়দিনে বান্দরবানে পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির উপজাতীয় বিষয়ক সম্পাদক মাম্যাচিং এর নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল, ছাত্রদলসহ বিএনপির একাংশের নেতাকর্মীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এসময় বান্দরবানে পৌর শপিং কমপ্লেক্সের সামনে মাম্যাচিং গ্রুপের সঙ্গে পুলিশের বাকবিতন্ডা ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পরে একইস্থানে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেত্রী মাম্যাচিং, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নেজাম চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াসিনুল হক রিপন, পৌর যুবদলের সভাপতি আইয়ুব খান, স্বেচ্ছাসেবক দলনেতা চনুমং মারমা, ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার বাবলুসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। অপরদিকে সমাবেশস্থলের মাত্র পঞ্চাশ গজের মধ্যেই বান্দরবান বাজারস্থ দুই নাম্বার গলিতে জেলা বিএনপির সভাপতি সাচিং প্রু জেরীর নেতৃত্বে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক মো: ওসমান গনি, যুগ্ন সম্পাদক মুজিবুর রশীদ, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, জামায়াত নেতা ওবাইদুল হকসহ জোটের নেতারা।

তার আগে হরতালে সমর্থনে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেরী সমর্থকেরা। পাল্টাপাল্টি মিছিল-সমাবেশের ঘটনায় দুগ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। মারমুখী অবস্থান নিয়েছে জেরী-মাম্যাচিং বিএনপির দুগ্রুপের নেতাকর্মীরা। নাশকতা এড়াতে শহরে বিপুল পরিমাণে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহম্মেদ জানান, অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নাশকতার চেষ্টা চালালেই গ্রেফতার করা হবে।

এদিকে হরতালের কারণে বান্দরবানে অভ্যন্তন্তরিন সড়কগুলোতে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। শহর ছেড়ে যায়নি দূর পাল্লার কোনো যানবাহনও। বন্ধ রয়েছে সকল প্রকার দোকানপাট এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

করোনায় কমেছে স্থানীয় পণ্যের চাহিদা

বছরের পর বছর ধরে পূর্বের ঐতিহ্য ধরে রাখতে বাঁশের তৈরি হস্তশিল্প, তাঁতের তৈরি থামি, চাদর …

Leave a Reply